বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ০১:৩৮ পূর্বাহ্ন

অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে বরগুনা হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিট

বরগুনা প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : ১১ জুন, ২০২০
  • ৪২ বার পঠিত

বরগুনার সদর হাসপাতালের আইসোলশন ইউনিট দীর্ঘদিন যাবত অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে রয়েছে। এমন অভিযোগ করে আসছে করোনা আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হওয়া কয়েকজন রোগী।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, হাসপাতালের করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় প্রস্তুত করে রাখা হয়েছে আইসোলেশন ইউনিট। নেই তেমন কোনো কার্যক্রম। রোগীদের খাবার ফেলে রাখা হয় রুমের মেঝেতে। বাথরুমের অবস্থা আরো বেশি খারাপ।

জেলা সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে মোট আক্রান্ত হয়েছে ১২ জন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্ত ৯৪ জন। এদের মধ্যে ৬৬ জন পুরুষ এবং ২৮ জন মহিলা।

বরগুনা জেলা সদর হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে করোনা আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হওয়া কয়েকজন রোগী বলেন, আমাদের বাথরুম নোংরা। টেস্টের আট-দশ দিন পরে ও মিলছে না পরীক্ষার রিপোর্ট। করোনায় সুস্থ্য হওয়া রোগীর পরিত্যাক্ত পোশাক আমাদের নাকের ডগায় রাখা হচ্ছে। প্রতিদিন একই ধরণের খাবার দেয়, বিদ্যুৎ না থাকলে বিকল্প কোনো ব্যবস্থা থাকে না। আমরা অন্ধকারে থাকি। আর এসব দেখার যেন কেউ নেই।

জেলা সদর হাসপাতালে করোনা আইসোলেশনের দায়িত্বে থাকা ডা. এম কে আজাদ বলেন, এত সুন্দর পরিবেশ বরগুনার আর কোথাও নেই। তবে মাত্র ৬ জন ক্লিনার দিয়ে পরিচ্ছন্ন রাখতে হিমসিম খেতে হচ্ছে। নিজেদের পকেটের পয়সা খরচ করে ফ্যানসহ ইলোক্রাট্রসিয়ান দিয়ে কাজ করাতে হচ্ছে।

বরগুনার সিভিল সার্জন ডা. হুমায়ুন শাহীন খান বলেন, হাসপাতালে কিছুটা সমস্যা আছে। পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের স্বল্পতাসহ নানান সমস্যা।বিদ্যুতের বিকল্প জেনারেটরের ব্যবস্থা করা হবে।হাসপাতালের যেকোনো সমস্যা তত্বাবধায়কের সাথে আলোচনা করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..