শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ০১:১৩ পূর্বাহ্ন

উৎসবে ‘তিয়াস’র প্রদর্শনী সনদ গ্রহণ করলেন নির্মাতা সুমন রেজা

বিনোদন ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার ২৮ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ৯৭

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি আয়োজিত তৃতীয় বাংলাদেশ স্বল্পদৈর্ঘ্য ও প্রামাণ্য চলচ্চিত্র উৎসব ২০২১ এ স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‌’তিয়াস’ এর প্রদর্শনীর জন্য সনদপত্র গ্রহণ করেছেন নির্মাতা সুমন রেজা। সারাদেশের চলচ্চিত্র নির্মাতাদের কাছ থেকে প্রায় ৪০০টি চলচ্চিত্র থেকে উৎসব উপলক্ষে গঠিত পাঁচ সদস্যবিশিষ্ট বাছাই কমিটি ১১৯টি চলচ্চিত্র (৮১টি কাহিনি চলচ্চিত্র ও ৩৮টি প্রামাণ্য চলচ্চিত্র) উৎসবে প্রদর্শনীর জন্য বাছাই করেন। গত ১৮-২৫ জুন ২০২১ আট দিনব্যাপী “তৃতীয় বাংলাদেশ স্বল্পদৈর্ঘ ও প্রামাণ্য চলচ্চিত্র উৎসব ২০২১” অনুষ্ঠিত হয়েছে। এবারের উৎসবটি উপমহাদেশের প্রথম চলচ্চিত্রকার ‘হীরালাল সেন’ কে এবারের উৎসবটি উৎসর্গ করা হয়।

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি ৩য় বারের মতো উৎসবটি আয়োজন করে। এবারের উৎসবে স্বল্পদৈর্ঘ্য ও প্রামাণ্য চলচ্চিত্র উভয় ক্ষেত্রে পৃথকভাবে ১১টি বিভাগে পুরস্কার ঘোষণা করা হয় । করোনা মহামারি সংকটের মধ্যেও অনলাইনে নিয়মিত উৎসব ও প্রদর্শনী আয়োজন করে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি। ১১টি বিভাগে পুরস্কার ঘোষণার পাশাপাশি পাঁচ সদসবিশিষ্ট বাছাই কমিটির প্রদর্শনীর জন্য নির্বাচিত ১১৯টি স্বল্পদৈর্ঘ্য ও প্রামাণ্য চলচ্চিত্র নির্মাতাকে সনদ প্রদান করা হয়।

উৎসবের চলচ্চিত্র সিলেকশন কমিটির সদস্যরা হলেন বিশিষ্ট চলচ্চিত্র গবেষক অনুপম হায়াৎ, বিশিষ্ট চলচ্চিত্র নির্মাতা সাজ্জাদ জহির, বিশিষ্ট চলচ্চিত্র নির্মাতা ও চিত্রগ্রাহক রাকিবুল হাসান, চলচ্চিত্র সমালোচক ও চিত্রনাট্যকার সাদিয়া খালিদ রীতি এবং শিল্পকলা একাডেমির নাট্যকলা ও চলচ্চিত্র বিভাগের সহকারী পরিচালক চাকলাদার মোস্তাফা আল মাস্উদ।

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি দীর্ঘদিন ধরে চলচ্চিত্রের উন্নয়নে নানামুখী কাজ করে চলছে। ২০১৫ ও ২০১৭ সালে দু’বার ৬৪টি জেলায় একযোগে ‘বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসব’ আয়োজন, ২০১৬ ও ২০১৮ সালে ৬৪টি জেলায় ‘বাংলাদেশ স্বল্পদৈর্ঘ্য ও প্রামাণ্য চলচ্চিত্র উৎসব’ আয়োজন, ২০১৭ সালে দেশব্যাপী ৬৪ জেলায় ‘বাংলাদেশ শিশু চলচ্চিত্র উৎসব’ আয়োজন করা হয়। এছাড়া ৬৪টি জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে ফিল্ম সোসাইটি গঠনের উদ্যোগও নেওয়া হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..