শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ১২:২৫ পূর্বাহ্ন

ওমিক্রন ঢেউয়ে ভেসে যাবে বিপিএল?

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১২ জানুয়ারী, ২০২২

করোনাভাইরাসের একের পর এক ঢেউ এসে দিশেহারা করে দিচ্ছে জনপদ। এবার কোভিড- ১৯ এর নতুন ধরণ ওমিক্রন থামিয়ে দিতে চাইছে যাপিত জীবন। বিশ্বের অনেক দেশেই সংক্রমণের সংখ্যা বাড়তে থাকায় এসেছে নানা নিষেধাজ্ঞা। বাংলাদেশেও আছড়ে পড়েছে ওমিক্রনের ঢেউ। যদিও এখনই লকডাউনের ইঙ্গিত নেই। তবে ঠিকই করোনা নিয়ে যে সরকার বেশ সতর্ক তা স্পষ্ট। আসছে বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) থেকে সারা দেশে ১১ দফা বিধি-নিষেধ কার্যকর করতে যাচ্ছে সরকার।

অথচ বাংলাদেশ ক্রিকেটাঙ্গনে ঠিক এমন সময়ে উত্তাপ ছড়াচ্ছে ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট। ২০ ওভারের ধামাকা বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) নিয়ে সরব চারপাশ। ড্রাফট শেষ, দল তৈরি। অনুশীলনেও নেমে পড়েছেন ক্রিকেটাররা। ২১ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়ার কথা রয়েছে এবারের বিপিএল। কিন্তু তার আগে এই টুর্নামেন্টের আকাশে কালো মেঘ। অতিমারির এই সময়ে ফ্রাঞ্চাইজি ক্রিকেটের উৎসব এই আয়োজন কতোটা যৌক্তিক সেই প্রশ্নটাও এসেছে সামনে!

নতুন করে ১১ দফা বিধি-নিষেধ কার্যকর হলে নিশ্চিত করেই বিপিএল নিয়ে একটা শঙ্কা তৈরি হবেই। কারণ গ্যালারিতে দর্শক বসিয়ে এবার এই ২০ ওভারের ক্রিকেট আয়োজনের পরিকল্পনা ছিল বিসিবির। প্রতিদিন আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ায় পরিস্থিতি যেদিকে যাচ্ছে তাতে গ্যালারিতে দর্শক না দেখার সম্ভাবনাই বেশি।

তবে দর্শক ছাড়াও বিপিএলের জন্য প্রস্তুতিটা আছে দলগুলোর। চট্টগ্রাম চ্যালঞ্জার্সের সিওও সৈয়দ ইয়াসির আলম বলছিলেন, ‘বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সাথে আমাদের নিয়মিত কথা হচ্ছে। ধরা যাক মাঠে কোন দর্শক নাই, এটা আপনার খেলার চিত্র বদলে দেবে না। আপনি মাঠে কতজন দর্শক রাখতে পারবেন? আর প্যান্ডেমিকের মধ্যে দর্শক মাঠে না আসতে পারলে তো তারা সবাই ঘরে বসে খেলা দেখবে। দর্শক তো অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ কিন্তু স্বাস্থ্যবিধির দিকটাও দেখতে হবে।’

বিপিএল নিয়ে বিগত বছরগুলোতে কম বিতর্ক হয়নি। এবারও শুরুর আগে ফ্রাঞ্চাইজি সরে যাওয়া নিয়ে কম কথা হয়নি। প্লেয়ার ড্রাফট শুরুর আগেই আয়োজন নিয়ে দেখা গেছে অব্যবস্থাপনার ছাপ। কেউ বলছেন বিপিএল সার্কাস আবার বিপিএলকে প্রবলেম লিগও উপমা দিচ্ছেন। ওমিক্রণের এই সময়ে ফের বল মাঠে গড়ালে আরেক বিতর্ক সঙ্গী হতেই পারে বিপিএলের!

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আজকের অর্থনীতি ২০১৯।

কারিগরি সহযোগিতায়:
x