শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ০৫:৫০ পূর্বাহ্ন

কুষ্টিয়ায় জমি জালিয়াতি প্রতারক চক্রের ৪ সদস্য আটক, গডফাদাররা অন্তরালে

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০

কুষ্টিয়ায় এনআইডি জালিয়াতি করে অন্যের জমি বিক্রির অভিযোগে প্রতারক চক্রের ৪ সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ। রোববার (৭ সেপ্টেম্বর) রাতে এক ভুক্তভোগীর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ তাদের আটক করে।

এ ঘটনায় জড়িত অন্য সদস্যদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার এসএম তানভীর আরাফাত জানান কুষ্টিয়া শহরের এম এম ওয়াদুদের পৈত্রিক সম্পত্তি কুষ্টিয়া শহরের একটি জালিয়াতি চক্র তাদের নামে জালিয়াতির মাধ্যমে ভুয়া এনআইডি কার্ড তৈরি করে মজমপুর মৌজার ২৫৭৫, ২৫৭৬, ২৫৮০, ২৫৮১ দাগের মধ্যে ০.২২ একর জমি বিক্রয় করে এবং কুষ্টিয়া মডেল থানাধীন মজমপুর, চৌড়হাস, বাহাদুরখালী মৌজার জমি জালিয়াতির মাধ্যমে ভুয়া দলিল তৈরি করে আত্মসাতের চেষ্টা করে। এই জমি মিরপুর উপজেলার কাঠদাহ গ্রামের মহিবুল ইসলামের কাছে ৭৭ লাখ টাকায় বিক্রি করে প্রতারক চক্র।

তবে এলাকার সচেতন মহল জানান, এই জমি জালিয়াতির মূল হোতারা রয়েছে ধরাছোঁয়ার বাইরে। মূল হোতাদের বের করে এনে জনসম্মুক্ষে প্রকাশ করা হোক বলে দাবি জানান। সাধারণ সচেতন মহল এটাও বলেন এত বড় জালিয়াতি এদের পক্ষে আদৌ সম্ভব নয়।

ভুক্তভোগীদের অভিযোগপত্রের ভিত্তিতে গত রাতে পুলিশ ব্যাপক অভিযান চালিয়ে প্রতারক চক্রের ৪ সদস্যকে আটক করে। এর প্রতারণার সাথে জড়িত অন্যদেরও গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

জালিয়াতি চক্রের সাথে জড়িতরা হলেন মো. ওয়াদুল মিন্টু খন্দকার (৬০), মো. মিলন হোসেন (৩৮), ছানোয়ারা খাতুন (৫০), জাহানারা খাতুন (৪৫)।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আজকের অর্থনীতি ২০১৯।

কারিগরি সহযোগিতায়:
x