রবিবার, ০১ অগাস্ট ২০২১, ০৭:২৬ অপরাহ্ন

গাজীপুর-কমলাপুর রুটে ট্রেন চলাচল শুরু

অর্থনীতি ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : রবিবার ২০ জুন, ২০২১
  • ৫৪ বার পঠিত

গাজীপুর মহানগরীর চান্দনা চৌরাস্তা থেকে টঙ্গী পর্যন্ত ১৩ কিলোমিটার এলাকায় যানজটে দুর্ভোগ কমাতে বিশেষ ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে। রোববার (২০ জুন) সকাল থেকে বিশেষ ট্রেন চলাচল শুরু করে। সকাল সোয়া ৭টার দিকে সহস্রাধিক যাত্রী নিয়ে তুরাগ এক্সপ্রেস ট্রেনটি জয়দেবপুর স্টেশন থেকে কমলাপুরের উদ্দেশে ছেড়ে যায়।

জয়দেবপুর স্টেশনের মাস্টার মো. রেজাউল ইসলাম জানান, করোনা পরিস্থিতি ও লকডাউনের কারণে বন্ধ থাকা ট্রেনগুলোর মধ্যে তুরাগ, কালিয়াকৈর ডেমু ও টাঙ্গাইল কমিউটার ট্রেন তিনটি চলাচল করবে। আজ সকাল ৭টা ১৫ মিনিটে তুরাগ ট্রেন ছেড়ে যায় ঢাকার উদ্দেশে। আর ঢাকা থেকে তুরাগ ছাড়বে বিকেল ৫টা ২০ মিনিটে।

টাঙ্গাইল কমিউটার ট্রেনটি সকাল ৮টা ২০ মিনিটে গাজীপুর থেকে ছেড়ে যায়। এটি আবার ঢাকা থেকে ছেড়ে আসবে সন্ধ্যা ৬টায়। আর কালিয়াকৈর ডেমু ট্রেন গাজীপুর ছেড়ে যাবে বিকেল ৫টা ৩০ মিনিটে। পর দিন ঢাকা থেকে ছাড়বে দুপুর ১টা ৫০ মিনিটে।

ঢাকা ও গাজীপুর অভিমুখী যাত্রীদের চলাচলের সুবিধার্থে ট্রেন সার্ভিস চালুর উদ্বোধন উপলক্ষে সকালে স্টেশনে উপস্থিত ছিলেন গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি কাজী আলিম উদ্দিন বুদ্দিন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মো. আরিফুল ইসলাম, গাজীপুর মেট্রোপলিটন কলেজের অধ্যক্ষ মো. শরিফুল ইসলাম, গাজীপুর প্যাসেঞ্জার কমিউনিটির সভাপতি প্রকৌশলী শামসুল হক প্রমুখ।

গাজীপুর প্যাসেঞ্জার কমিউনিটির সভাপতি প্রকৌশলী শামসুল হক জানান, যানজটে নাকাল গাজীপুরবাসীর দীর্ঘ দিনের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে এ ট্রেন সার্ভিস চালু হয়েছে। গাজীপুরবাসী রেলমন্ত্রী, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্টদের প্রতি কৃতজ্ঞ। তিনি বলেন, তুরাগ ট্রেনটি গাজীপুর থেকে ঢাকায় গিয়ে সারা দিন বসে থাকে। এ ট্রেনটিকে সেখানে বসিয়ে না রেখে আরও কয়েকটি ট্রিপ দেওয়া গেলে আরও বেশি যাত্রী ঢাকায় যাতায়াত করতে পারত।

উল্লেখ্য, রাজধানী ঢাকার পাশে গাজীপুর এবং উত্তরাঞ্চলসহ ৩৭টি জেলার যাত্রীদের ঢাকা প্রবেশের সময় চান্দনা চৌরাস্তা থেকে টঙ্গী ব্রিজ পর্যন্ত ১৩ কিলোমিটার সড়কে তীব্র যানজটে পড়তে হয়। এ অংশে বিআরটি প্রকল্পের উন্নয়ন কাজ চলমান থাকায় আধা ঘণ্টার পথ অনেক সময় ৫-৬ ঘণ্টা লেগে যায়। অব্যাহত যানজটের কারণে মানুষের দুর্ভোগের বিষয়টি বিবেচনা করে এ তিনটি ট্রেন সার্ভিস চালু করার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। গাজীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য এবং যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেলের প্রচেষ্টায় এ ট্রেন সার্ভিসটি চালুর উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..