শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ০৬:৫৫ পূর্বাহ্ন

জবিতে বসছে আরও ২২টি সিসিটিভি ক্যামেরা

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) ক্যাম্পাসে নতুন করে আরও ২২ টি ক্লোজ সার্কিট টেলিভিশন (সিসিটিভি) ক্যামেরা বসানো পরিকল্পনা করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। প্রকল্পটির প্রস্তাবনাও ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। উপাচার্যের অনুমোদন পেলেই অতিদ্রুত কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হবে।

সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মোস্তফা কামাল ও নেটওয়ার্ক এন্ড আইটি দপ্তরের পরিচালক অধ্যাপক ড. উজ্জ্বল কুমার আচার্য্য এসব তথ্য জানিয়েছেন।

গত বৃহস্পতিবার ইউজিসি ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের এক ভার্চুয়াল বৈঠকে দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সিসিটিভি ক্যামেরা বসানোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়গুলো খোলার পর সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করতে ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ জায়গাগুলোতে সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানো হবে। তাছাড়া ক্যাম্পাসের সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে নিরাপত্তা সংশ্লিষ্টদের নজরদারি থাকবে। তবে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা বিঘ্ন হয় এমন কিছুই হবেনা বলে জানানো হয়েছে। একই সঙ্গে যেকোনো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা এড়াতে বিশেষ নজরদারি রাখা হবে। ক্যাম্পাসগুলোতে ‘নৈরাজ্য’ ও ‘জঙ্গিবাদ প্রচার’ হওয়ার আশঙ্কা সংক্রান্ত কোনো তথ্য আছি কি-না জানতে গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর সঙ্গে যোগাযোগ রাখবে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

এরই প্রেক্ষিতেই জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে নতুন করে আরও ২২ টি সিসিটিভি বসানোর কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে। আগে থেকেই ক্যাম্পাসের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ জায়গাগুলোতে ৪০টিরও বেশি সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানো থাকলেও এর এর মধ্যে সচল রয়েছে ৪০টির মতো। আরো বেশি নিরাপত্তা নিশ্চিতে নতুন করে আরো ২২টি সিসিটিভি ক্যামেরা বসাবো হবে। পর্যায়ক্রমে এর সংখ্যা আরও বাড়বে বলেও জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইটি দপ্তর। সিসিটিভি লাগানো থেকে শুরু করে এর সার্বিক তত্বাবধানে থাকবে আইটি দপ্তর।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মোস্তফা কামাল আজেকর অর্থনীতিকে বলেন, আমাদের আগে থেকেই অনেকগুলো সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানো আছে। তবে কিছু কিছু জায়গায় আরো লাগাতে হবে। সেজন্য ইতোমধ্যেই প্রস্তাবনা রেডি হয়ে গেছে। বাকিটা আইটি দপ্তর বলতে পারবে।

আইটি দপ্তরের পরিচালক অধ্যাপক ড. উজ্জ্বল কুমার আচার্য্য জানান, আমাদের অলরেডি ২২ টি ক্যামেরা কেনার সিদ্ধান্ত হয়েছে। ভিসি স্যার অনুমোদন দিলেই এটার বাস্তবায়ন হবে। আমরা এখন ২২ টা লাগাচ্ছি, এরপর পর্যায়ক্রমে আরো লাগানো হবে। এখন তোর আমরা একসাথেই অনেকগুলো লাগাতে পারবোনা। সেজন্য প্রাথমিকভাবে ২২ টি ক্যামেরা লাগানো হবে। এই কার্যক্রমের সার্বিক তত্বাবধানে আইটি দপ্তর থাকবে।

উল্লেখ্য, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে বর্তমানে ৪০ টির মতো সিসি ক্যামেরা রয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক থেকে শুরু করে ভিসি ভবন, নিউ একাডেমিক ভবনের নিচতলায়, কলা ভবন, ক্যাফেটেরিয়ার ভেতরে ও বাহিরে, অবকাশ ভবনের কোনায়, শান্ত চত্বরে রয়েছে একের অধিক সিসিটিভি ক্যামেরা। এসব ক্লোজ সার্টিক ক্যামেরা গুলোর দেখাশুনার দায়িত্বেও রয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের নেটওয়ার্ক এন্ড আইটি দপ্তর।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আজকের অর্থনীতি ২০১৯।

কারিগরি সহযোগিতায়:
x