বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ০৬:২৯ পূর্বাহ্ন

ঝিনাইদহের চুরি হওয়া ৭টি গরু খুলনা ও বাগেরহাট থেকে উদ্ধার

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১ নভেম্বর, ২০২১

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ থানা অভ্যন্তরে আজ সোমবার (১লা নভেম্বর) সকালে এক সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আবুল বাশার জানান, গত ১২ অক্টোবর ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ শহরের ফয়লা গ্রামের মৃত কুসুই মন্ডলের ছেলে গনজের আলীর ৭টি ও ১৯ অক্টোবর দিনগত রাতে ঝিনাইদহ সদর থানার হামদল ঘোষপাড়া এলাকা থেকে মৃত তাজুল গাজীর ছেলে জালাল গাজীর ৬টি গরু চুরি হয়।

ঘটনার পর কালীগঞ্জ ও সদর থানায় পৃথক দুইটি চুরি মামলা দায়ের হয়। পুলিশ তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার ও সিসি টিভি ফুটেজ পর্যালোচনা করে চোরদের সনাক্ত করে খুলনা ও বাগেরহাট জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান শুরু করে। অভিযান চালিয়ে আন্তঃজেলা গরু চোর চক্রের ৭ সদস্যকে গ্রেপ্তারও করেছেন। গতকাল রোববার রাতে খুলনা ও বাগেরহাট জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় গ্রেপ্তার হওয়া চোরদের হেফাজত থেকে ছোট বড় ১৫ টি গরু উদ্ধার করে পুলিশ।

গ্রেপ্তার হওয়া আসামিরা হচ্ছেন, বাগেরহাট জেলার কচুয়া থানার নরেন্দ্রপুর গ্রামের আকুব্বর কাজীর ছেলে উজ্জ্বল কাজী (৩৫), খুলনা জেলার বটিয়াঘাটি উপজেলার লক্ষীখোলা গ্রামের মৃত আব্দুল্লাহ শেখের ছেলে জিয়া শেখ (৪২), বাগেরহাট জেলার চিতলমারী উপজেলার শ্যামপাড়ার মৃত লিয়াকত আলীর খানের ছেলে সুজন খান ওরফে মিলন (৪২), বাগেরহাট জেলার ফকিরহাট উপজেলার ছোট বাহিরদিয়া গ্রামের মৃত নুর মোহাম্মদ কাজীর ছেলে আল আমিন কাজী (২৯), খুলনা জেলার ডুমুরিয়া উপজেলার জিলেরডাংগা গ্রামের মৃত আব্দুল আজিজ ফকিরের ছেলে সেকেন্দার আলী ফকির (৪৫), খুলনা জেলার ডুমুরিয়া উপজেলার খলসি গ্রামের আব্দুল হালিম গাজীর ছেলে রুবেল গাজী (৩৫) ও বাগেরহাট জেলার জেলার ফকিরহাট উপজেলার বড় খাজুরা গ্রামের মৃত মজিদ শেখের ছেলে শেখ ওহাব (৫০)।

সংবাদ সম্মেলনের সময় কালীগঞ্জ থানার ওসি মুহাঃ মাহফুজুর রহমানসহ থানার অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।মাহফুজুর রহমান বলেন, গরু চুরির ঘটনায় গত ১৩ অক্টোবর থানায় মামলা হয়। মামলার পর তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই সুজাত আলী তদন্ত কার্যক্রম শুরু করেন । পরে সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ ও তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে আসামিদের সনাক্ত করে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ সময় উদ্ধার করা হয়েছে ছোট বড় ১৫ টি গরু।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আজকের অর্থনীতি ২০১৯।

কারিগরি সহযোগিতায়: