রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:০৮ পূর্বাহ্ন

ডলার যেনো পাগলা ঘোড়া, ব্যাংকে ৮৮ বাইরে ৯১ টাকা

অর্থনীতি ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার ২৬ অক্টোবর, ২০২১
  • ৫৫

আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে দেশের অর্থবাণিজ্যসহ অনেক কিছুর মিল না থাকলেও সরকারের চেষ্টায় কিছুটা স্বস্তি থাকে। অনেক কিছু সরকার অনেক কষ্টে নিয়ন্ত্রণ করতে চাইলেও আমার নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয় না। সম্প্রতি আন্ত ব্যাংক মুদ্রাবাজারে সরবরাহ বাড়িয়ে ডলারের দাম কিছুটা নিয়ন্ত্রণের মধ্যে রাখা গেলেও বিপরীত চিত্র খোলাবাজারে।

অর্থনীতিবীদরা বলছেন, মসরবরাহ ঘাটতির কারণে এই বাজারে পাগলা ঘোড়ার বেগে ছুটছে ডলারের দাম। মাত্র এক সপ্তাহের ব্যবধানে প্রতি ডলারের দাম বেড়েছে প্রায় এক টাকা। এখন খোলাবাজারে প্রতি ডলারের জন্য ক্রেতাকে গুনতে হচ্ছে প্রায় ৯১ টাকা। একই কারণে ব্যাংকেও নগদ ডলারের দাম কিছুদিন ধরেই বাড়ছে। বর্তমানে ব্যাংকে নগদ ডলার বিক্রি হচ্ছে ৮৭ থেকে ৮৮ টাকার মধ্যে।

তবে আন্ত ব্যাংকে মুদ্রাবাজারে (ব্যাংক টু ব্যাংক) গত এক সপ্তাহে ডলারের দাম নতুন করে বাড়েনি, আগের মতোই ৮৫ টাকা ৬৫ পয়সায় বিক্রি হচ্ছে। বর্তমানে আন্ত ব্যাংকের সঙ্গে খোলাবাজারে ডলারের দামের ব্যবধান চার টাকা ছাড়িয়ে গেছে। স্বাভাবিক সময়ে এই পার্থক্য দুই থেকে আড়াই টাকার মধ্যে থাকে।

সাধারণত ডলারের দাম বাড়লে রেমিটার ও রপ্তানিকারকরা লাভবান হন। আর ক্ষতিগ্রস্ত হন আমদানিকারক ও সাধারণ মানুষ। কারণ ডলারের দাম বাড়লে পণ্যের মূল্যও বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। এরই মধ্যে আমদানি করা অনেক পণ্যের দাম বেড়েও গেছে।

কয়েকটি মানি এক্সচেঞ্জে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গতকাল সোমবার খোলাবাজারে প্রতি ডলার ৯০ টাকা ৫০ পয়সা থেকে ৯০ টাকা ৯০ পয়সা পর্যন্ত বিক্রি হয়েছে। আগের কার্যদিবস রবিবার বিক্রি হয় ৮৯ টাকা ৯০ পয়সা থেকে ৯০ টাকা ২০ পয়সায়। এক সপ্তাহ আগে প্রতি ডলারের দাম ছিল ৮৯ টাকা ৫০ পয়সা থেকে ৮৯ টাকা ৯০ পয়সা। ফলে এক সপ্তাহের ব্যবধানেই খোলাবাজারে প্রতি ডলারের দাম বেড়েছে প্রায় এক টাকা।

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..