রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০৮:২১ পূর্বাহ্ন

পরিকল্পনামন্ত্রীর বক্তব্য প্রমাণ করে দেশে দুর্নীতি কোন পর্যায়ে পৌঁছেছে

অর্থনীতি ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর, ২০২১
  • ৩৫

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর নায়েবে আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ ফয়জুল করীম শায়খে চরমোনাই বলেছেন, দেশে দুর্নীতি অত্যন্ত প্রকট আকার ধারণ করেছে। প্রতিটি সেক্টরে দুর্নীতিতে ছেয়ে গেছে। গতকাল পরিকল্পনা মন্ত্রীর একটি বক্তব্য খেয়াল করলে বুঝা যায়, তিনি বলেছেন, ‘১০০ টাকা বরাদ্দ হলে গ্রামে পৌঁছে ১০ টাকা’ পরিকল্পনা মন্ত্রীর এ বক্তব্যই প্রমাণ করে দেশে দুর্নীতি কোন পর্যায়ে পৌঁছেছে? ফয়জুল করীম বলেন, ইসলামে দুর্নীতির কোন সুযোগ নেই। দুর্নীতি মানুষ কেন করে, তা নির্ণয় করে সে আলোকে কঠোর ব্যবস্থা করে। কঠোর শাস্তির বিধানের ফলে কেউ দুর্নীতি করার সাহস পায় না।

গতকাল সন্ধ্যায় শরিয়তপুর জেলা সদরের আংগারিয়া তুলাতলা মাদরাসা মাঠে অনুষ্ঠিত বিশাল ইসলামী সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। সম্মেলনে লক্ষ জনতার ঢল নামে। সম্মেলনে শহরের ওলামায়ে কেরাম এবং মসজিদের ইমামগণ উপস্থিত ছিলেন।

মুফতী সৈয়দ ফয়জুল করীম বলেন, সমাজ ও রাষ্ট্রের কোথাও ইসলাম প্রতিষ্ঠিত না থাকায় মানুষ নৈতিকতাহীন হয়ে পড়েছে। ইসলাম থেকে দূরে সরে যাওয়ায় মানুষ অনৈতিকতার ধাবিত হচ্ছে। সামাজিক অবকাঠামো ভেঙ্গে যাচ্ছে। নারী নির্যাতন, ধর্ষণ বেড়ে যাচ্ছে। মানুষ বিচারহীনতায় ভুগছে। জোর যার মুল্লক তার পরিস্থিতিতে মানুষ অসহায় জীবন যাপন করছে। ইসলাম শান্তি ও কল্যাণের ধর্ম, মানবতার ধর্ম, এ কথা মানুষ বেমালুম ভুলে যাচ্ছে। ফলে সমাজের সর্বত্র অশান্তি বিরাজ করছে।

মুফতী ফয়জুল করীম বলেন, বিশ্বের সর্বত্র মানবাধিকার চরমভাবে লঙ্ঘিত। আজ যারা নারী অধিকার ও মানবাধিকারের কথা বলে, তারাই নারীদের অসম্মান করে এবং মানবাধিকার বেশি লঙ্ঘন করেন। এমতাবস্থায় সকলকে ইসলামের বিধিবিধান অনুসরণ অনুকরণ করতে হবে। ইসলাম ছাড়া মানবতার মুক্তি কস্মিণকালেও সম্ভব নয়। তাই আসুন ইসলামের সুমহান পতাকাতলে সমবেত হই। ইসলাম ও মানবতার পক্ষে ময়দানে অবতীর্ণ হই।

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..