বুধবার, ২০ জানুয়ারী ২০২১, ০৩:৩৯ অপরাহ্ন

প্রকল্পে দলগত দুর্নীতি হচ্ছে : পরিকল্পনামন্ত্রী

অর্থনীতি ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : বুধবার ১৩ জানুয়ারী, ২০২১
  • ২৩ বার পঠিত

পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান বলেছেন, সরকারের উন্নয়ন প্রকল্পে দুর্নীতি নিয়ে এক ধরনের জোয়ার উঠে গেছে। প্রকল্পের কেনাকাটায় দলগত (টিমওয়ার্ক) দুর্নীতি হয় বলে আমার ধারণা, তবে ব্যক্তিগত পর্যায়ে দুর্নীতি বেশি হয়। সম্ভাব্যতা সমীক্ষা ছাড়া প্রকল্প গ্রহণ করা হলে মেয়াদ ও সময় বৃদ্ধি পায়। অনেক সময় প্রকল্পের উদ্দেশ্য বাস্তবায়িত হয় না। এজন্য সম্ভাব্যতা যাচাই-বাছাই করে প্রকল্প গ্রহণ করতে হবে।

গতকাল রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কক্ষে ‘উন্নয়ন প্রকল্পের সম্ভাব্যতা সমীক্ষা প্রতিবেদনের খসড়া রূপরেখা চূড়ান্তকরণ’ শীর্ষক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন পরিকল্পনামন্ত্রী। এ সময় পরিকল্পনা বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. আসাদুল ইসলামসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, আমার ধারণা দুর্নীতিতে মাঝে মাঝে টিমওয়ার্ক হয়। পকেটমারও কিন্তু টিমওয়ার্ক। একজন নেয়, আরেকজনকে দিয়ে দেয়, সে আরেকজনকে দেয়, এভাবে হয় বলে শুনেছিলাম। দুর্নীতিতেও এ রকম আছে কোনো কোনো ক্ষেত্রে।

প্রথমবারের মতো প্রকল্পের সম্ভাব্যতা সমীক্ষা প্রতিবেদনের কোনো কাঠামো তৈরি করছে পরিকল্পনা কমিশন। ‘ডিজিটাল ডাটাবেজ সিস্টেম ও আর্কাইভ প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে এনইসি-একনেক ও সমন্বয় অনুবিভাগের সক্ষমতা বৃদ্ধিকরণ (প্রথম সংশোধন)’ প্রকল্পের আওতায় সেই কাঠামো তৈরি করা হচ্ছে। সম্ভাব্যতা সমীক্ষা প্রতিবেদনের জন্য তৈরি করা খসড়া ফরমেট চূড়ান্ত করার লক্ষ্যে গতকাল পরিকল্পনা কমিশনে একটি কর্মশালা আয়োজন করা হয়। তাতে সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, বিভাগ, অধিদপ্তরের ৫৮ জন শীর্ষ কর্মকর্তা অংশ নেন।

এ বিষয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের একটা ফরমেট থাকবে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের। তবে প্রকল্পের সমীক্ষা যাচাইয়ের ফরমেট ইংরেজিতে তৈরি করা হয়েছে। সেটিকে ইংরেজির পাশাপাশি বাংলায় করতে হবে। প্রকল্পের ডিপিপি অনুমোদনের জন্য আমার কাছে আসে, ডিপিপিতে একটা কলাম থাকে ফিজিবিলিটি স্টাডি করা হয়েছে কিনা। বলা থাকে, করা হয়েছে। কিন্তু কোথায় করেছে, কে করেছে, কী করেছে, কোনো কাগজই দেখি না। জনগণের প্রতিনিধি হিসেবে আমি এখানে আছি। ফলে প্রকল্পে টাকা খরচের ব্যাপারে ফিজিবিলিটি স্টাডি করা লাগবে।

কর্মকর্তাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, মানুষ আশা করে আপনাদের কাছ থেকে ভালো আউটপুট। মানুষ মনে করে যে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় একটা টেকনিক্যাল মন্ত্রণালয়। এখানে সব অর্থনীতি বিষয়ে বিশেষজ্ঞ ব্যক্তিরা আছেন। তারা নিশ্চয় ডিপিপি ভালো করে তৈরি করে দিয়েছেন। মন্ত্রী নিয়ে তারা কনসার্ন নয়, কারণ মন্ত্রী আসে-যায়। আপনারা তো স্থায়ী সিভিল সার্ভেন্ট। আপনারা ২০ বছর, ২৫ বছর কাজ করে এখানে এসেছেন। যেখানেই যাই, যে আলোচনায় যাই, দুর্নীতি নিয়ে প্রশ্ন করে। আমি বিরক্ত হই। তবে আমি বিশ্বাস করি, আমি দুর্নীতিবাজ কারো সঙ্গে কাজ করি না।

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..