শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১১:০৪ পূর্বাহ্ন

বাসের ধাক্কায় মাহিন্দ্রা খাদে, নিহত ১

মামুনুর রহমান মামুন, দৌলতখান প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার ১৯ নভেম্বর, ২০২০
  • ২৮ বার পঠিত

ভোলার দৌলতখানে বাসের ধাক্কায় থ্রি-হুইলার মাহিন্দ্রা খাদে পড়ে একজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ৯ জন।

বুধবার বিকেলে উপজেলার চরখলিফা মাদরাসা মোড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত তামজিদ (১৫) উপজেলার চরখলিফা ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের ঝরু মালের বাড়ির আবদুল মালেকের ছেলে। সে দৌলতখান পৌর বাজারের স্বপন মিয়ার হোটেলের কর্মচারী ছিলো।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, দৌলতখান বাসস্ট্যান্ড থেকে চৈতী ট্রাভেলস নামের যাত্রীবাহী বাস ও একটি যাত্রীবাহী থ্রি-হুইলার মাহিন্দ্রা একইসঙ্গে বাংলাবাজারের উদ্দেশে রওনা দেয়। মাহিন্দ্রাটি যাত্রিবাহী বাসটিকে পেছনে রেখে এগিয়ে যাচ্ছিলো। সাইড চেয়ে বাসের ড্রাইভার বার বার ভেঁপু বাজালেও মাহিন্দ্রা চালক সাইড দিচ্ছিলো না। এ সময় চরখলিফা মাদরাসা মোড়ে এলে যাত্রিবাহী বাসটি পেছন থেকে মাহিন্দ্রাকে সজোরে ধাক্কা মারে। এতে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাশের খাদে পড়ে যায়। এ সময় মাহিন্দ্রার ধাক্কায় পথচারী তামজিদ খাদে পড়ে পানিতে ডুবে যায়।

খবর পেয়ে দৌলতখান ফায়ার সার্ভিসের একটি টিম ঘন্টাব্যাপী অভিযান চালিয়ে তামজিদকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমেপ্লেক্সে পাঠালে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। গুরুতর আহত খালেক মাঝি, আবুল খান ও কাঞ্চনকে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত আমজাদ হোসেন, জাহিদ, মেহের জান, পরিমল, কাঞ্চন ও নাইমকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

দৌলতখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বজলার রহমান জানান, বাসটিকে জব্দ করা হয়েছে। চালককে আটক করা যায়নি। তবে নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ পাওয়া গেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..