শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৮:৩১ পূর্বাহ্ন

বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় আ’লীগের ২৩ নেতা বহিষ্কারের সুপারিশ

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১৭ নভেম্বর, ২০২১
কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলায় আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের ২৩ জন নেতাকে দল থেকে বহিষ্কারের সুপারিশ করেছে স্থানীয় কমিটি। দলীয় নির্দেশনা অমান্য করে তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় তাঁদের বিরুদ্ধে এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানানো হয়। গত সোমবার রাতে দৌলতপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মো. মির্জা আলম প্রথম আলোকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, গতকাল রাত পর্যন্ত ২৩ জন প্রার্থীর কাছে বহিষ্কারের সুপারিশের চিঠি পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।
দলীয় সূত্র জানায়, তৃতীয় ধাপে এ উপজেলার ১৪টি ইউপির সব কটিতে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী দিয়েছে। তবে এসব ইউপিতে আওয়ামী লীগের ১৮ জন ও সহযোগী সংগঠন থেকে আরও ৫ জন নেতা বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে প্রচারণা চালাচ্ছেন। পরে ৮ নভেম্বর দৌলতপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের জরুরি সভায় দলের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী তাঁদের বিরুদ্ধে বহিষ্কারের সুপারিশের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এরপর গতকাল সুপারিশের চিঠি জেলা কমিটি ও বিদ্রোহী প্রার্থীদের কাছে পাঠানো হয়।
বহিষ্কারের তালিকায় থাকা প্রার্থীরা হলেন দৌলতপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও প্রাগপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল হালসানা, মথুরাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা কামাল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য শহিদুল ইসলাম, আওয়ামী লীগের নেতা মনোয়ার কবির, ফিলিপনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতা ওরুশ কবিরাজ ও নইমুদ্দিন সেন্টু, মরিচা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতা জোয়াদুর রহমান, জাহিদুল ইসলাম, মহিফুল ইসলাম, চিলমারী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতা আবদুল মান্নান, হোগলবাড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতা রায়হানুল হক, পিয়ারপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম, রেফায়েতপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল মান্নান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আবদুর রশিদ, দৌলতপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতা ইয়াছিন আলী, বোয়ালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আবু আফফান ও আড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হেলাল উদ্দিন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আজকের অর্থনীতি ২০১৯।

কারিগরি সহযোগিতায়: