শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৭:০৩ পূর্বাহ্ন

ভারতে আটকে পড়া দু’টি ফিশিং ট্রলারসহ ৮৮ জন বাংলাদেশী জেলে

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২৯ আগস্ট, ২০২২

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)-এর কার্যকর উদ্যোগের ফলে ভারতে আটকে পড়া ‘FB Shah Amanat’ এবং ‘FB Sonar Madina-2’ নামক দু’টি ফিশিং ট্রলারসহ ৮৮ জন বাংলাদেশী জেলেকে বিজিবি’র নিকট হস্তান্তর করেছে বিএসএফ।

আজ ২৯ আগস্ট ২০২২ তারিখ বিকেলে বিজিবি’র নীলডুমুর ব্যাটালিয়ন (১৭ বিজিবি)-এর অপারেশনাল দায়িত্বাধীন রিভারাইন বর্ডার গার্ড কোম্পানীর অধীনস্থ কৈখালী বিওপি’র দায়িত্বপূর্ণ এলাকার বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের কালিন্দী নদীর মধ্যবর্তী স্থানে ভারতে আটকে পড়া দু’টি ফিশিং ট্রলারসহ ৮৮ জন বাংলাদেশী জেলেকে বিজিবি’র কাছে হস্তান্তর করে বিএসএফ। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কূটনৈতিক তৎপরতায় কলকাতাস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের উপ-হাইকমিশনারের সার্বিক সহযোগিতায় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) খুব দ্রুততম সময়ে সংশ্লিষ্ট বিএসএফ কর্তৃপক্ষের সাথে কার্যকর যোগাযোগ স্থাপনের মাধ্যমে কলকাতার বারুইপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে আটক ৮৮ জন বাংলাদেশী জেলেকে মাতৃভূমি বাংলাদেশে দ্রুত প্রত্যাবাসনের ব্যবস্থা করে। বর্ণিত হস্তান্তর/গ্রহণের সময় বিজিবি ও বিএসএফের প্রতিনিধি, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, জেলা বিশেষ শাখা, সাতক্ষীরা ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, শ্যামনগর থানা, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, কক্সবাজার থেকে আগত প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, বিজিবি’র ব্যবস্থাপনায় প্রত্যাবাসনকৃত ৮৮ জন বাংলাদেশী জেলেদের জন্য খাবার এবং অন্যান্য প্রশাসনিক সহায়তার ব্যবস্থা করা হয়।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসের মাঝামাঝি সময়ে ঘন কুয়াশার কারণে অসাবধানতাবশতঃ ফিশিং ট্রলারসহ এই ৮৮ জন বাংলাদেশী জেলে বঙ্গোপসাগরের ভারতীয় জলসীমায় প্রবেশ করলে ভারতীয় কোস্টগার্ড তাদেরকে আটক করে কলকাতার বারুইপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে প্রেরণ করে। পরবর্তীতে আইনি সকল প্রক্রিয়া শেষে আজ তারা স্বদেশে প্রত্যাবর্তন করলো।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আজকের অর্থনীতি ২০১৯।

কারিগরি সহযোগিতায়: