শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ০১:৩১ অপরাহ্ন

শতাধিক ধান কাটার শ্রমিককে দুই জেলায় পৌঁছে দিল এলেঙ্গা হাইওয়ে পুলিশ

টাঙ্গাইল (মধুপুর) প্রতিনিধি:
  • আপডেট টাইম : শনিবার ১৭ এপ্রিল, ২০২১
  • ১৫৭ বার পঠিত

পাবনার শতাধিক ধান কাটার শ্রমিকের নিরাপত্তা ও স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করে মুন্সীগঞ্জ ও হবিগঞ্জ জেলায় পাঠালো টাঙ্গাইল মধুপুরে এলেঙ্গা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ি। শনিবার দুপুরে হাইওয়ে পুলিশের উর্দ্ধতন কর্তৃপরে অনুমতিক্রমে বাস মালিক সমিতির মাধ্যমে দুইটি বাসে করে তাদেকে পাঠানো হয়। এতে সার্বিক সহযোগিতা করেন গাজীপুর হাইওয়ে রিজিয়ন।

সূত্র জানা যায়, শুক্রবার রাতে পাবনা সদর ও সুজানগর উপজেলা থেকে দুটি ট্রাকে করে ঝুঁকি নিয়ে শতাধিক ধান কাটার শ্রমিক হবিগঞ্জের বানিয়াচং ও মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগর যাচ্ছিল। সাড়ে ১২ টার দিকে মধুপুর এলেঙ্গা হাইয়ে পুলিশ ফাঁড়ির চেকপোষ্টে আসলে নিরাপত্তা ও স্বাস্থ্য ঝুঁকির স্বার্থে ট্রাক দুটি শ্রমিকসহ ফাঁড়ি হেফাজতে নেওয়া হয়। রাতের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাসে না পাঠাতে পেরে দুপুরে দুই বাসে করে মানবিক দিক বিবেচনা করে গন্তব্যে পৌঁছে দেন।

ট্রাক দুটির চালক কুরবান আলী ও উজ্জ্বল বলেন, সরকারের নিষেধ না মেনে এভাবে ট্রাকে করে ঝুঁকি নিয়ে এতোগুলো মানুষ নিয়ে যাওয়া ঠিক হয়নি। পরে হাইওয়ে পুলিশ বাসের ব্যবস্থা করে গন্তব্যে পৌঁছায়।

শ্রমিক বিল্লাল মিয়া বলেন, আমরা গরিব মানুষ। দিনে আনি দিনে খায় অবস্থা। কাজ ছাড়া গতি নাই। তবে সরকারে নিষেধ মান্য করে এভাবে ট্রাকে করে যাওয়ায় আমরা ভুল করেছি। এ কারণে হাইওয়ের পুলিশের স্যাররা আমাদের বিষয়টি বুঝতে পেরে বাসে করে আমাদের কাজের জায়গায় পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করে দেন।
এলেঙ্গা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইয়াসির আরাফাত বলেন , মহামারিতে সরকারের নির্ধারিত স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করে দুটি ট্রাকে গাদাগাদি করে শতাধিক ধান কাটার শ্রমিক খুবই ঝুঁকি নিয়ে কর্মস্থলে যাচ্ছিল। এটি হাইওয়ে পুলিশের নজরে আসলে তাদের আমাদের হেফাজতে রেখে মানবিক দিক বিবেচনা করে দুটি বাসের ব্যবস্থা করে গন্তব্যস্থলে পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করি।

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..