সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:৪৬ পূর্বাহ্ন

শেখ হাসিনার পতন ছাড়া গণধর্ষন ও নিপীড়ন বন্ধ হবে না : ডাঃ ইরান

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৭ অক্টোবর, ২০২০
সরকার নারীর ইজ্জত আব্রু ও নিরাপত্তা দিতে চরম ভাবে ব্যর্থ হয়েছে মন্তব্য করে বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান ইরান বলেছেন, গণধর্ষন ও নারী নির্যাতন জ্যামিতিক হাওে বাড়ছে। রাষ্ট্রীয় পৃষ্টপোষকতায় দেশে ধর্ষনের মহোৎসব চালাচ্ছে ছাত্রলীগ, যুবলীগসহ সরকার দলীয় নেতাকর্মীরা। পরিস্থিতি এমন হয়েছে যে, ৭২ সালের ন্যায় যুবতি মেয়ে নিয়ে জঙ্গলে রাত কাটাতে হবে। বর্তমান সামাজিক ও রাজনৈতিক অবক্ষয়ের কারনে দেশে আইয়্যামে জাহিলিয়াতের চেয়েও আওয়ামী জাহিলিয়াত ভয়াবহ আকার ধারন করেছে। দেশের প্রধানমন্ত্রী, স্পিকার, সংসদের বিরোধীদলীয় নেত্রী ও রাজপথের বিরোধীদলীয় নেত্রী নারী হওয়ার পরও দেশে নারী শিশুরা গনধর্ষন ও চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। ধর্ষন বিরোধী সমাবেশ ও বিক্ষোভে পুলিশী হামলার তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে ডাঃ ইরান বলেন, সরকার আইন শৃংখলা বাহীনিকে বিরোধী শক্তি নির্মুলে ব্যবহার করায় সরকার দলীয় নেতা-কর্মীরা আইনের তোয়াক্কা না করে অসামাজিক কর্মকান্ডে জড়িয়ে পড়ছে। রক্ষক আজ ভক্ষকে পরিনত হয়েছে। পুলিশ ধর্ষন কারীকের গ্রেফতার না করে ধর্ষনের প্রতিবাদকারীকে হেনেস্তা করছে। এটা একটা সভ্য সমাজে চলতে পারেনা।  শেখ হাসিনার পতন ছাড়া গনধর্ষন, নারী শিশূ নির্যাতন ও নিপীড়ন বন্ধ হবে না।
তিনি বলেন, সরকার দলীয় ছাত্রলীগ-যুবলীগ নেতা-কর্মীরা দেশব্যাপী মানবতা বিরোধী অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে। তারা হিংস্র জানোয়ারের চেয়েও নিকৃষ্ট লোমর্হষক কর্মকান্ডের মাধ্যমে  নারী ও শিশুর সম্ভ্রম লুটোপুটে খাচ্ছে। বিচারহীনতা, গনতন্ত্র ও সুশাসনকে শেখ হাসিনা গলাটিপে হত্যা করার সুফল জনগন পেতে শুরু করেছে। এমসি কলেজ ও নোয়াখালীসহ বিভিন্ন স্থানে ধর্ষস-সহ প্রায় সকল ধর্ষনে ছাত্রলীগ যুবলীগ জড়িত। আওয়ামী নেতা-কর্মীরা ক্ষুর্ধাত জানোয়ারের মতো মা বোনের ইজ্জত লুন্ঠন করছে। কয়লা ধুইলে যেমন ময়লা যায় না তেমনি ৫০ বছরেও আওয়ামী লীগের চরিত্র বদলায়নি। তাই দেশপ্রেমিক ছাত্র ও যুবসমাজকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে প্রতিবাদ ও প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।

তিনি আজ ৭ অক্টোবর (বুধবার) দুপুরে ফটোজার্নালিস্টের সামনে বাংলাদেশ ছাত্র মিশন আযোজিত ধর্ষন বিরোধী বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন কর্মসুচীতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।

ছাত্রমিশন সভাপতি সৈয়দ মোঃ মিলনের সভাপতিত্বে কর্মসুচীতে বক্তব্য রাখেন লেবার পার্টির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার ফরিদ উদ্দিন, ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব লায়ন ফারুক রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান এস এম ইউসুফ আলী, মহিলা সম্পাদিকা নাছিমা নাজনিন সরকার, কেন্দ্রীয়নেতা লিটন খান রাজু, খোরশেদ আলম, ছাত্রমিশন সাধারন সম্পাদক মোঃ শরিফুল ইসলাম, যুবমিশন সদস্য সচিব সৈকত চৌধুরী, ছাত্রমিশন যুগ্ম-সম্পাদক সাব্বির আহমেদ, রাহেল হোসেন আনোয়ার প্রচার সম্পাদক হাফিজুর রহমান রিফাত ও প্রকাশনা সম্পাদক মামুনুর রশিদ প্রমুখ।

ফটোজার্নালিষ্ট থেকে শুরু হয়ে মিছিলটি দৈনিক বাংলা, ক্রীড়া পরিষদ, বায়তুল মোকারম, পল্টনমোড় হয়ে হাউজবিল্ডিংয়ের সামনে পথসভা করে শেষ হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আজকের অর্থনীতি ২০১৯।

কারিগরি সহযোগিতায়: