সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২, ০৬:৫০ পূর্বাহ্ন

শৈলকুপায় দুই গ্রুপের সংঘর্ষে বাড়ি ভাংচুর

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৬ অক্টোবর, ২০২১

ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার বারুইহুদা গ্রামে আওয়ামী লীগের বিবাদমান দুই গ্রুপের মধ্যে তুমুল সংঘর্ষে উভয় পক্ষের অন্তত ৫০ জন আহত ও ৩০ টি বাড়ি ভাংচুর করা হয়েছে। ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল ও শৈলকুপা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আহতদের ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত ৭ জনকে গ্রেফতার করেছে।

অভিযোগ আছে, হাসেম আলী, নাস্তম শেখ, রুস্তম শেখ, মিজানুর রহমান, হাবিব, মুক্তার শেখ, নবাব শেখ, মুসা শেখ, বাদশা শেখ, আজিজুল শেখ, আমজাদ শেখ, লিটন, জসিম শেখ, হাসমত শেখ, ছলেমান ও নেছার উদ্দীনের বাড়িসহ ৫০টি বাড়ি ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে।

হামলায় আলিম বিশ্বাস, বিপুল, রাজ্জাক বিশ্বাস, সজীব, আজিম, হামিদুল, ছবেদা খাতুন, রয়েল মোল্যা, নাসির বিশ্বাস, দবির উদ্দিন, ফকির আলী, সরিফুল ইসলাম, রিজিয়া খাতুন, খলিল বিশ্বাস, লাল্টু, আমেনা বেগমসহ ২০ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যরা হাসপাতাল ও বিভিন্ন ক্লিনিক থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার বগুড়া ইউনিয়নের বারুইহুদা গ্রামে স্থানীয় আওয়ামী লীগের সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম এবং যুবলীগ নেতা শফিকুলের সমর্থকদের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম বলেন, শফিকুল সমর্থিত নাসির উদ্দীনের নেতৃত্বে শতাধিক লোকজন ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোঠা নিয়ে বারুইহুদা গ্রামের বিভিন্ন বাড়ীতে ঢুকে ৩০টি ঘর ভাংচুর করে এবং ঘরের ভেতরে থাকা বিভিন্ন আসবাবপত্র, টিভি, ফ্রিজ ভাংচুর করে। এ সময় তারা ঘরে ঢুকে বাক্সে থাকা কাপড়, নগদ টাকা, স্বর্নলঙ্কার এমনকি গরু-ছাগল লুট করে নিয়ে যায়। এ সময় তাদের হামলায় কমপক্ষে ৩০ জন আহত হয়।

অপরদিকে জেলা যুবলীগ নেতা শফিকুল ইসলাম বলেন, চেয়ারম্যান নজরুল ইসলামের গ্রুপের আব্দুল বারিকের লোকজন বারুইহুদা স্কুলে বসে থাকা আমার সমর্থকদের উপর অতর্কিত হামলা করে। এ ঘটনায় বেশ কয়েকজন আহত হন। পরে গ্রামবাসি জোট বদ্ধ হয়ে প্রতিপক্ষকে ধাওয়া করে। শফিকুল আরো বলেন, এই ঘটনার জন্য নজরুল চেয়ারম্যান ও তার সমর্থকরা দায়ী।

শৈলকুপা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম জানান, সরকারী দলের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনার খবর পেয়ে তিনি নিজে ওই এলাকা পরিদর্শন করে এসেছেন। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওই এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আজকের অর্থনীতি ২০১৯।

কারিগরি সহযোগিতায়:
x