রবিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৬:৪৩ পূর্বাহ্ন

পদত্যাগ করলেই হবে না, ক্ষমাও চাইতে হবে মুরাদকে

অর্থনীতি ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০২১

নিউজটি শেয়ার করুন

সম্প্রতি খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং বিদেশ প্রেরণের বিষয়ে সরব রয়েছে বিএনপি। আলোচিত তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান জিয়া পরিবার নিয়ে বাজে মন্তব্য করায় তার প্রতিবাদ জানিয়ে আসছিলো দলটি। এরমধ্যেই ঘটলো মুরাদের অডিও ফাঁস। সব মিলিয়ে মুরাদকে পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। বিষয়টিকে ইতিবাচকভাবে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছে বিএনপি নেতারা। তবে শুধু পদত্যাগ নয় মুরাদকে ক্ষমা চাইতে হবে এমন দাবি বিএনপির।

সোমবার (৬ ডিসেম্বর) রাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদকে পদত্যাগের নির্দেশ দেন। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। এমন নির্দেশনা পাওয়ার পর বিএনপির নেতারা ওই প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘আমরা শুধু তার পদত্যাগের দাবি করি নাই, একই সঙ্গে তাকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতেও বলেছি। তিনি যে ভাষায় জিয়া পরিবারের সদস্যদের নিয়ে মন্তব্য করেছেন, তা কোনো সভ্য মানুষের পক্ষে সম্ভব নয়। তবে, তাকে পদত্যাগের নির্দেশ দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাই।’

বিএনপির আরেক স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিমা রহমান বলেন, জিয়া পরিবার নিয়ে মুরাদ যেভাবে কথা বলেছেন, তা পুরোপুরি নারী সমাজের জন্য লজ্জার ব্যাপার। তারপরও সরকার একটি ভালো কাজ করেছে, তাকে পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছে।

সোমবার রাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিতর্কিত মন্তব্য করে দেশজুড়ে সমালোচনার মুখে পড়া তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. মুরাদ হাসানকে মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগের নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ইতোমধ্যে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার বিষয়ে প্রতিমন্ত্রীকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবারের মধ্যে তাকে পদত্যাগ করতে বলা হয়েছে।

ডা. মুরাদ হাসান জামালপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য। পেশায় চিকিৎসক এ রাজনীতিবিদ স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) ও একাত্তরের ঘাতক-দালাল নির্মূল কমিটির কেন্দ্রীয় সদস্য। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ের পর আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করলে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হয় তাকে। ২০১৯ সালের মে মাসে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী হিসেবে নিযুক্ত হন তিনি।

এ জাতীয় আরো খবর..

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আজকের অর্থনীতি ২০১৯।

কারিগরি সহযোগিতায়:
x