মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ০৯:১২ অপরাহ্ন

জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষ কর্মচারী ইউনিয়নের নতুন কমিটি ঘোষণা

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২ জানুয়ারী, ২০২২

জাতীয় গৃয়াহন কর্তৃপক্ষ কর্মচারী ইউনিয়নের ২০২২-২০২৩ মেয়াদে নতুন কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। আজ রবিবার দুপুর দুইটায় জাতীয় গৃহায়ন কর্মচারি ইউনিয়নের নিজ কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষ’র সিনিয়র একাউনটেন্ট মামুনুর রশিদ। নতুন কমিটিতে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন মো. মনসুর আলম, কার্যকরী সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন এ. কে. এম সামছুদ্দোহা পাটোয়ারী এবং সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন মো. দেলোয়ার হোসেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন নির্বাচনের জন্য গঠিত নির্বাচন কমিশনের দু্ই নির্বাচন কমিশনার জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষ’র নকশাকার মহিউদ্দিন আহমদে ও বিভাগীয় হিসাবরক্ষক জাকির হোসেন।

নতুন কমিটির হাতে ফলাফল হস্তান্তর করছেন নির্বাচন কমিশন

নতুন কমিটিতে অন্যান্যদের মধ্যে সিনিয়র সহ-সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন মো. আতিকুর রহমান, সহ-সভাপতি-১ মো. মোস্তফা কামাল, সহ-সভাপতি-২ মো. জহিরুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. মালেকিন নাছির, সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ আশরাফুল আলম এবং অর্থ সম্পাদক মো. নাছির হোসেন।

ফলাফর ঘোষণার পর নবনির্বাচিত কমিটিকে ফুলের মালা দিয়ে কর্মচারিদের বরণ

নবনির্বাচিত কমিটির সভাপতি মো. মনসুর আলম বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন এক মাসের বেশি সময় ধরে কষ্ট করে আজকে চূড়ান্ত ফলাফল দিতে পেরেছেন এই জন্য কমিশনকে ধন্যবাদ। জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষের কর্মচারিরা মনসুর-দেলােয়ার পরিষোদকে আবারো নির্বাচিত করায় সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা। যারা আমাদের উপর আস্থা রেখেছেন তাদের পাশে থেকে সে প্রতিদান দিতে হবে।’
তিনি বলেন, ‘নতুন কমিটি একশো দিনের মধ্যেই কর্মসূচি দিয়ে চেয়ারম্যানের সঙ্গে কথা বলে কর্মচারিদের যত দাবি দাওয়া আছে সব কিছুর সমাধান করবে। সবাই নির্বাচনী কমিটিকে পাশে থেকে শক্তিশালী করবেন এই প্রত্যাশা।’

বিজয়ীদের নাম ঘোষণার পর দেওয়া বক্তব্যে নবনির্বাচিত কমিটির কার্যকরী সভাপতি এ. কে. এম সামছুদ্দোহা পাটোয়ারী বলেন, ‌’অনেকদিন পর একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হয়েছে। এটি সম্ভব হয়েছে নির্বাচন কমিশনের চেষ্টায়। আগামী দুই বছর আমাদের সকল কর্মচারীদের লক্ষ্য থাকবে এই সেবাখাতের অফিসে সেবাগ্রহিতাদের কোন ধরণের ভোগান্তি ছাড়া সেবা নিশ্চিত করা। আমরা সবাই মিলে জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে এগিয়ে নেয়ার জন্য কাজ করবো ইনশায়াল্লাহ।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমরা যারা চাকরি করি তারা কেউ ভুলের উর্ধ্বে নয়। তাই সবার সহযোগিতা জরুরি। কর্মচারীদের পেনশন সমস্যা থেকে শুরু করে বিভিন্ন সমস্যাগুলো নিয়ে ইতিমধ্যেই কমিটির সবাই আলোচনা করেছে। এই পরিষদের মাধ্যমেই সব দাবি পূরণ করা হবে। তাই সবাইকে উদার মন নিয়ে কাজ করতে হবে। মনে রাখতে হবে আমরা একটা শক্তি হিসেবে একসঙ্গে থাকলে সব কিছুই সম্ভব।’

নব নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক মো. দেলোয়ার হোসেন বলেন, ‌’জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষে দীর্ঘদিন যাবত একট অশুভ প্রতিযোগিতা গ্রাস করে রেখেছিল, যাইহোক অবশেষে সিনিয়রদের সহযোগিতায় একটি গ্রহণযোগ্য প্যানেল করতে পেরেছি। যারজন্য আমাদের প্রতিদন্ধীও পাওয়া যায়নি। সকল কর্মচারিরা এই কমিটিকে গ্রহণ করেছে এটাই বড় প্রমাণ। তাই সকল কর্মচারির প্রতি কৃতজ্ঞতা রইলো।’

তিনি আরো বলেন, ‌’আজকের পর নতুন কমিটির সবার দায়িত্ব অনেক বেড়ে গেছে। কর্মচারিদের যে সমস্যাগুলো আছে সবাইকে নিয়ে কাজ করতে হবে। মনে রাখতে হবে সকল কর্মচারি আমরা সমান। তাই যার যেকোন সমস্যা থাকুক সমাধানের জন্য কাজ করবো।’

প্রসঙ্গত, ২০২১ সালের ৫ ডিসেম্বর এই নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। পরে ৭ ডিসেম্বর প্রকাশ করা হয় হালনাগাদ ভোটার তালিকা। এরপর ৯ ডিসেম্বর নির্বাচন কমিশনারের কাছ থেকে সংগৃহিত বৈধ ও জমা তালিকা প্রকাশ করা হয়। আর ১৪ ডিসেম্বর শুনানী শেষে প্রকাশ করা হয় চূড়ান্ত প্রার্থীদের তালিকা। পরে ১৫ ডিসেম্বর প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়। জানা যায়, এই সময়ের মধ্যে শুধুমাত্র মনসুর-দেলোয়ার প্যানেল চাড়া বিপক্ষ কোন প্যানেল বা ব্যক্তিগতভাবে মনোয়ন সংগ্রহ বা জমা না দেয়াতে চলতি বছরের শুরুর দিন ১লা জানুয়ারী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও সেটি হয়নি। ফলে নির্বাচন কমিশন আজ ২ জুন রবিবার মনসুর-দেলোয়ার পরিষদের প্রার্থীদের নির্বাচিত হিসেবে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন।

 

 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আজকের অর্থনীতি ২০১৯।

কারিগরি সহযোগিতায়: