মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ০৮:৩১ অপরাহ্ন

গৃহবধূকে ধর্ষণের পরে হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২২

পটুয়াখালীতে মানসুরা আক্তার নামে কে গৃহবধুকে ধর্ষনের পর হত্যার ঘটনায় বিচারের দাবীতে মানববন্ধন করেছে এলাকার শত শত নারী। সকাল সাড়ে ১০টায় পটুয়াখালী প্রেসক্লাব চত্ত্বরে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন ঝর্না বেগম,পরভীন বেগম,রাহিমা বেগম ও নিহতের ভাই বেলাল হোসেন।

মানববন্ধনে অভিযোগ করে তারা বলেন সদর উপজেলার আউলিয়াপুর ইউনিয়নের মেয়ে মানসুরার বিয়ে হয়েছিলো পার্শবর্তী আমখোলা ইউনিয়নে। ১৩ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় তার ননদের জামাই এমাদুল ইসলাম তাঁকে ধর্ষনের পর হত্যা করে। পরে স্থানীয় চৌকিদারের সহয়তায় তাঁকে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসলে ডাক্তার তাঁকে মৃত ঘোষনা করে। তবে নিহতের ভাই গলাচিপা থানায় মামলা দায়ের করতে গেলে মামলা নেয়নি পুলিশ। মানসুরা হত্যার বিচারের দাবীতে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন শেষে বিক্ষোভ প্রদর্শনও করে নারীরা।

নিহতের ভাই বেলাল জানান,মানসুরার ননদের জামাই এমাদুল দীর্ঘ দিন ধরে তার বোনের ইজ্জত লুটের পরিকল্পনা করে আসছিলো। এর আগেও একবার সে তার বোনকে ধর্ষনের চেষ্টা করে। বিষয়টি নিয়ে পারিবারিক ভাবে শালিস বৈঠকও হয়। তখন এমাদুল তার বৌকে তালাক দেয়ার হুমকী দিলে এমাদুলকে কোন শাস্তি দিতে পারেনি তারা।

ঘটনার দিন এমাদুল বাড়িতে তার বোনকে একা পেয়ে ধর্ষন করে হত্যার পর আত্মহত্যার নাটক সাজায়।
অভিযুক্ত এমাদুল মোবাইল ফোনে জানান,তিনি নির্দোশ। শাশুড়ীর সাথে অভিমান করে সে আত্মহত্যা করেছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহফুজুর রহমান জানান,গলাচিপা থানায় এ বিষয় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। পোষ্ট মর্টাম রির্পোট পাওয়া সাপেক্ষে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আজকের অর্থনীতি ২০১৯।

কারিগরি সহযোগিতায়: