শনিবার, ১০ জুন ২০২৩, ০৯:৪৯ পূর্বাহ্ন

জনগণকে মাদকাসক্ত বানানোর চিন্তা বাদ না দিলে কঠোর কর্মসূচি: চরমোনাই পীর

অর্থনীতি ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী, ২০২২

নিউজটি শেয়ার করুন

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নায়েবে আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম শায়খে চরমোনাই ২১ বছর বয়সীদের মদ খাওয়ার লাইসেন্স দেয়ার সরকারি ফায়তারার গভীর উদ্বেগ ও ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছেন, জনগণকে মাদকাসক্ত বানানোর চিন্তা থেকে ফিরে না আসলে কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে। তিনি বলেন, ইসলাম মদকে হারাম করেছে। সরকার হালালের চেষ্টা করলে সরকারের জন্য তা সুখকর হবে না। ৯২ ভাগ মুসলমানের দেশে হারাম মদকে হালাল করার চক্রান্ত করলে জনগণ রাস্তায় নেমে প্রতিরোধ করতে বাধ্য হবে।

আজ শনিবার বিকেলে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর মজিলসে আমেলার এক সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। মহাসচিব অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ-এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, উপদেষ্টা প্রফেসর ডা. আক্কাস আলী সরকার, যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, ইঞ্জিনিয়ার আশরাফুল আলম, সহকারী মহাসচিব হাফেজ মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ ও মাওলানা ইমতিয়াজ আলম, কেএম আতিকুর রহমান, অধ্যাপক সৈয়দ বেলায়েত হোসেন, আহমদ আবদুল কাইয়ূম, মু. বরকত উল্লাহ লতিফ, জিএম রুহুল আমিন, শায়খ ফজলুল করীম মারূফ, মুফতি হেমায়েতুল্লাহ, মুফতি দেলাওয়ার হোসাইন সাকী, মাওলানা নেছার উদ্দিন, মুফতী কেফায়েতুল্লাহ কাশফী, এডভোকেট লুৎফুর রহমান শেখ, এডভোকেট শওকত আলী হাওলাদার, মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম, মাওলানা এবিএম জাকারিয়া প্রমুখ।

সভায় আগামী ১-৩১ মার্চ দেশব্যাপী দাওয়াত ও সদস্য সংগ্রহ মাস পালনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। এ সময়ে সারাদেশে সংগঠনের কেন্দ্রীয়, জেলা, মহানগর, থানা, পৌরসভা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডসহ সকল পর্যায়ে দায়িত্বশীলগণ দাওয়াতী কাজে অংশ নেবেন এবং নতুন সদস্য সংগ্রহ করবেন। প্রচলিত শাসন ব্যবস্থার অসারতা তুলে ধরে এবং ইসলামী অনুশাসনের প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরে জনগণের মাঝে ইসলামের সঠিক দাওয়াত তুলে ধরার জন্য সকল নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

এ জাতীয় আরো খবর..

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আজকের অর্থনীতি ২০১৯।

কারিগরি সহযোগিতায়:
x