শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪, ০১:১৫ পূর্বাহ্ন

অসহায়দের জন্য জয় নেহাল মানবিক ইউনিটের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ

অর্থনীতি ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২২

নিউজটি শেয়ার করুন

‘সংসার সুখের হয় জননীর গুনে’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে এবার অসহায়, নিম্নবিত্ত ও গরিব-দুঃখীদের স্বাবলম্বী করতে কুষ্টিয়া হরিপুর ইউনিয়নের বোয়ালদহ কান্তি নগর এলাকায় অবস্থিত জয় নেহাল মানবিক ইউনিট ব্যতিক্রমী উদ্যোগের মাধ্যমে কাজ করে যাচ্ছেন।

তারই ধারাবাহিকতায় গত ২০ ফেব্রুয়ারি কান্তি নগর গ্রামের অসহায় ও দরিদ্র ৬০ জন মহিলার হাতে তিনটা করে মোট ১৮০টি বড় হাঁস তুলে দেন ইউনিটের মুল উদ্যোক্তা বিশিষ্ট সমাজসেবক ও ব্যবসায়ী আবুল কালাম আজাদ, আমন্ত্রিত অতিথি তানজিমা জামান, সাদিয়া ইসলাম চৌধুরী স্মরণ ও ডাক্তার সুমাইয়া তাসনিম স্মরণ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মোস্তাফিজুর রহমান মিলন, বিশিষ্ট সাংবাদিক কে এম শাহীন রেজা, রাকিব, সাকিব, তিতাস, এজাজ উচ্ছ্বাস, হুসাইন, আশিক, আব্দুল্লাহ, আনিস, পলক, ইমরান, ফাহিম ও ফয়সাল ।

শুধু এটাই নয় ইতিপূর্বে প্রবাসী জয় নেহালের সহযোগিতায় জয় নেহাল মানবিক ইউনিট বোয়ালদহ মেছ পাড়া মোড়ে মানিককে পুনর্বাসনের জন্য মানিক মাছ স্টোর করে দিয়েছে। আতিয়ারকে আতিয়ার সবজি ভান্ডার করে দিয়েছে। ফারুক নামের একজন ব্যক্তিকে ফারুক টি ষ্টোর বসিয়ে দিয়েছে। আকরাম নামের এক ব্যক্তিকে আকরাম চটপটি স্টোর করে দিয়েছে। এভাবে প্রতিনিয়ত উক্ত এলাকার গোরস্থান মসজিদ মাদ্রাসায় সহযোগিতা করে যাচ্ছেন।

এর কৃতিত্ব শুধু একজন ব্যক্তিরই। তিনি হলেন, কুষ্টিয়া সরকারি কলেজের অবসরপ্রাপ্ত প্রফেসর নেহাল স্যারের ছোট ছেলে জয় নেহাল। তিনি আমেরিকা থেকে এক বার্তায় বলেন, যতদিন বেঁচে আছি আমি আমার জন্মভূমির অসহায় দরিদ্র জনগোষ্ঠীর পাশে দাঁড়িয়ে আমি আমার সাধ্যমত জয় নেহাল মানবিক ইউনিটের মাধ্যমে সেবা করে যাব। আপনারা আমার পরিবারের জন্য দোয়া করবেন আমি যেন সুদূর আমেরিকা থেকে আপনাদের সহযোগিতা করে যেতে পারি।

এ জাতীয় আরো খবর..

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আজকের অর্থনীতি ২০১৯।

কারিগরি সহযোগিতায়:
x