বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০১:৫০ অপরাহ্ন

হিজাবের বিরুদ্ধে ভারতের আদালতের রায়

অর্থনীতি ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৫ মার্চ, ২০২২

নিউজটি শেয়ার করুন

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর যুগ্ম মহাসচিব ইঞ্জিনিয়ার আশরাফুল আলম বলেছেন, ভারতের কর্ণাটক রাজ্যের হাইকোর্ট যে রায় ঘোষণা করেছে তা মুসলিম উম্মাহর বিরুদ্ধে কুঠারাতের শামিল। এ রায়ের মধ্য দিয়ে বিচারপতিগণ নিজেদের অজ্ঞ ও মুর্খ হিসেবে পরিচয় দিয়েছেন। কেননা ইসলামে মুসলমান প্রাপ্ত বয়স্ক নারীদের জন্য হিজাব বা পর্দার বিধানকে ফরজ তথা অপরিহার্য হিসেবে ঘোষণা করেছে।

ভারতের আদালত বলেছে- ‘মেয়েদের হিজাব পরা কখনোই ইসলাম ধর্মের অপরিহার্য অংশ নয়’। ভারতের আদালত- এর এ ধরণের রায় চরম মুখতার পরিচায়ক। আল্লাহর বিধানের উপর রায় দেয়ার এখতিয়ার ভারত কেন বিশ্বের কোন আদালতই রাখে না। অবিলম্বে ভারতের আদতালতকে ইসলাম ধর্মের বিরুদ্ধে দেয়া রায় বাতিল করতে হবে। অন্যথায় বিশ্বব্যাপী মুসলমানরা প্রতিবাদ গড়ে তুলবে।

আজ বিকেলে পুরানা পল্টনস্থ আইএবি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি পর্যালোচনা এবং ৩১ মার্চ ঘোষিত মহাসমাবেশের প্রস্তুতি পর্যালোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এতে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দলের সহকারি মহাসচিব মাওলানা মুহাম্মদ ইমতিয়াজ আলম, কেন্দ্রীয় প্রচার ও দাওয়াহ বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, কেন্দ্রীয় দফতর সম্পাদক মাওলানা লোকমান হোসাইন জাফরী, মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাকী, মাওলানা এবিএম জাকারিয়া, মাওলানা মকবুল হোসাইন।

সভায় ৩১ মার্চ রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে অনুষ্ঠিতব্য জাতীয় মহাসমাবেশ প্রস্তুতি পর্যালোচনা করে বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

এ জাতীয় আরো খবর..

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আজকের অর্থনীতি ২০১৯।

কারিগরি সহযোগিতায়:
x