মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১০:৪২ অপরাহ্ন

শেহবাজ শরিফ ৩৪ বছর পর প্রধানমন্ত্রী

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১২ এপ্রিল, ২০২২

রাজনীতি শুরুর পর উত্থান-পতনের ৩৪ বছরে এসে মিয়া মোহাম্মদ শেহবাজ শরিফ সোমবার পাকিস্তানের ২৩তম প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন। দেশটির সদ্য সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের রাজনৈতিক দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) সদস্যরা জাতীয় পরিষদের অধিবেশন থেকে ওয়াক আউট করায় নিজেদের বলয়ের সদস্যদের ভোটে সহজেই প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন তিনি। ৩৪২ আসনের জাতীয় পরিষদে ১৭৪ ভোট পান শেহবাজ শরিফ।

পাকিস্তানের সংসদের নিম্নকক্ষে সংখ্যাগরিষ্ঠ দল পিটিআই। তাদের সদস্য সংখ্যা ১৫৫। কিন্তু সোমবার তারা অধিবেশন বর্জন করে। এরপর সম্মিলিত বিরোধী দলের ১৭৪ সদস্য ভোট দিয়ে শেহবাজকে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করেন।

১৯৫০ সালে লাহোরে জন্ম নেওয়া শেহবাজ শরিফ পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজের (পিএমএল-এন) নেতা এবং তিনবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের ছোট ভাই। তিনি পাকিস্তানের বৃহত্তম প্রদেশ পাঞ্জাবের তিনবারের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন। পাকিস্তানের সাবেক সামরিক শাসক পারভেজ মুশাররফ শরীফ ভাইদের সৌদি আরবে নির্বাসিত করার আগে ১৯৯৭-১৯৯৯ সাল পর্যন্ত পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন শেহবাজ শরিফ। পরে আরও দুই দফায় ২০০৮-২০১৩ এবং ২০১৩ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

সর্বশেষ পিটিআইয়ের আমলে জাতীয় পরিষদে বিরোধী দলের নেতা ছিলেন তিনি। কাজপাগল হিসেবে পরিচিত শেহবাজ শরিফ মুখ্যমন্ত্রীর পরিবর্তে নিজেকে খাদিম-ই-আলা (প্রধান কর্মচারী) বলতে পছন্দ করতেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আজকের অর্থনীতি ২০১৯।

কারিগরি সহযোগিতায়: