মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০৬:২১ পূর্বাহ্ন

দাবি আদায়ের জন্য সরকারি কর্মচারীদের সংবাদ সম্মেলন

অর্থনীতি ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২২

নিউজটি শেয়ার করুন

নবম পে-স্কেল বাস্তবায়ন করা ও সর্বোচ্চ বেতনের পার্থক্য ১ দশমিক ৫ হওয়াসহ ৭ দফা দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ সরকারি কর্মচারী সংহতি পরিষদ। আজ শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের মাওলানা মোহাম্মদ আকরাম সাহেব হলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবি জানান পরিষদের মহাসচিব মো. আমজাদ আলী খান। সংবাদ সম্মেলন থেকে বলা হয়, দাবি আদায়ের লক্ষ্যে এ ৭ দাবি নিয়ে আগামী ১১ মে ১০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে স্মারকলিপি প্রদান করবেন।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন পরিষদের সভাপতি মো. মতিউর রহমান, উপদেষ্টা মো. মহিউদ্দিন, মো. বরকত খান, কার্যকরী সভাপতি আসকার ইবনে শায়েখ খাজা ও সহ-সভাপতি মো. ইব্রাহীম প্রমুখ।

পরিষদের অন্য বাকি দাবিগুলো হচ্ছে- নবম পে-স্কেল প্রদানের আগ পর্যন্ত দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির বিষয় বিবেচনা করে ৫০ শতাংশ মহার্ঘ্য ভাতা প্রদান করা; সরকারি কর্মচারীদের আগের মতো তিনটি টাইম স্কেল, সিলেকশন গ্রেড ও বেতন সমতাকরণ পুনর্বহাল করা। জীবনযাত্রার মান সমুন্নত রাখার স্বার্থে এবং দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির বিষয় বিবেচনা করে পেনশনের হার ৯০ থেকে ১০০ শতাংশ ও গ্রাচ্যুইটির হার টাকায় ১=২৩০ টাকার জায়গায় ১=৪০০ টাকায় উন্নীত করা; এক ও অভিন্ন নিয়োগ বিধি চালুসহ সচিবালয়ের মতো সচিবালয়ের বাইরে সব সরকারি কর্মচারীদের সিলেকশন গ্রেডসহ পদবী ও বেতন বৈষম্য দূর করতে হবে। ব্লক পোস্টধারীদের পদোন্নতির সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে।

আউটসোর্সিং পদ্ধতি বাতিল করতে হবে। বিভিন্ন সরকারি দপ্তর/প্রতিষ্ঠানে কর্মচারীদের হয়রানিমূলক বদলি আদেশ, অত্যাচার-নির্যাতন মূলক ও মিথ্যা মামলা বন্ধ/প্রত্যাহার করতে হবে; ক্যাডারে কর্মরত কর্মচারীদের মতো সরকারি কর্মচারীদের বিনা সুদে ৩০ থেকে ৫০ লাখ টাকা গৃহ নির্মাণ ঋণ দিতে হবে এবং চাকরিতে প্রবেশ বয়সসীমা ৩২ বছর এবং অবসর গ্রহণের বয়সসীমা ৬২ বছর করতে হবে। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মতো সব দপ্তরে পোষ্য কোটা চালু করতে হবে।

 

 

এ জাতীয় আরো খবর..

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আজকের অর্থনীতি ২০১৯।

কারিগরি সহযোগিতায়:
x