বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:০৭ অপরাহ্ন

জবাবদিহিতার কথা মনে থাকলে মানুষ অন্যায় কাজ করতে পারে না

অর্থনীতি ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২২

নিউজটি শেয়ার করুন

আন্জুমানে রহমানিয়া মইনীয়া মাইজভাণ্ডারীয়া আয়োজিত মাহে রমজানের তাৎপর্য শীর্ষক আলোচনা ও ইফতার মাহফিলে মুনাজাত পরিচালনা করছেন শাহ্সূফী মাওলানা সাইয়্যিদ সাইফুদ্দীন আহমদ আল্-হাসানী (মা.জি.আ.)।

আন্জুমানে রহমানিয়া মইনীয়া মাইজভাণ্ডারীয়া চট্টগ্রাম জেলার উদ্যোগে মাহে রমজানের তাৎপর্য শীর্ষক আলোচনা ও ইফতার মাহফিল বুধবার বিকেলে চকবাজারস্থ মাইজভাণ্ডার মন্জিলে অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন মাইজভাণ্ডার দরবার শরীফের সাজ্জাদানশীন ও আন্জুমানে রহমানিয়া মইনীয়া মাইজভাণ্ডারীয়ার কেন্দ্রীয় সভাপতি শাহ্সূফী মাওলানা সাইয়্যিদ সাইফুদ্দীন আহমদ আল্-হাসানী (মা.জি.আ.)।

তিনি বলেন, মাহে রমজানে রোজার বিধান দেয়া হয়েছে মানুষ যাতে জীবনযাপনে আল্লাহভীতির চেতনা জাগ্রত করে সৎকাজে অগ্রসর হয়। আল্লাহভীতি ও নৈতিক বোধের উজ্জীবন ঘটানোই মাহে রমজানের তাৎপর্য ও শিক্ষা। সাইয়্যিদ সাইফুদ্দীন আহমদ আল্-হাসানী বলেন, রমজান ভোগের মাস নয়; সংযম ও ত্যাগের শিক্ষাই দেয় রোজা। সকল মুসলিম দেশে রোজার মাসে পণ্যমূল্য হ্রাস করা হলেও ব্যতিক্রম শুধু আমাদের প্রিয় এই স্বদেশ। এখানে রোজার মাস মানে যেন চুটিয়ে টাকা কামানোর মোক্ষম সুযোগ। মুসলমান হয়ে এবং রোজাদার হয়ে পণ্যমূল্য বাড়িয়ে দিয়ে যারা ভোক্তাদের কষ্টে নিপতিত করে তাদের কোনো নিস্তার নেই।

একদিন তাদেরকে আল্লাহর আদালতে জবাবদিহি করতে হবে। সকল কাজের জন্য আল্লাহপাকের কাছে জবাবদিহিতার কথা মনে থাকলে মানুষ কখনো গর্হিত ও অন্যায় কাজে জড়াতে পারে না বলে তিনি উল্লেখ করেন। তিনি ভোগ্যপণ্যে ভেজাল দেওয়া এবং পণ্য গুদামজাত করে দাম বাড়িয়ে দেয়ার চলমান অসাধু প্রবণতা থেকে বেরিয়ে আসতে ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানান। মাহফিলে বিশেষ অতিথি ছিলেন, হযরত সৈয়দ মইনুদ্দীন আহমদ মাইজভাণ্ডারী ট্রাস্টের মহাসচিব অ্যাডভোকেট কাজী মহসীন চৌধুরী, প্রফেসর মো: কাজীম উদ্দীন।

মাহফিলে অতিথি ও আলোচক ছিলেন বশির শাহ দরবার শরীফের সাজ্জাদানশীন খলিফা সামশুল আলম সান্জরি, আন্জুমান চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার সাধারণ সম্পাদক খলিফা কাজী মুহাম্মদ শহিদুল্লাহ, উত্তর জেলা আহ্বায়ক খলিফা মো: আব্দুল হামিদ, মহানগর সাংগঠনিক সম্পদাক জসিম উদ্দীন ভূঁইয়া, আমতল ছিদ্দিক্বীয়া মইনীয়া সুন্নিয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার মাওলানা বাকের আনসারী, মইনীয়া ওলামা মাশায়েখ ফোরামের আহ্বায়ক মাওলানা ইসমাইল হোসেন সিরাজী, কাপাসগোলা মহল্লা কমিটির সাবেক সভাপতি আজিজুল হক মঞ্জু, চকবাজার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আমিনুল হক রমজু, চকবাজার ইউনিট আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী মো: সেলিম রহমান, চকবাজার ইউনিট আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, মইনীয়া জাতীয় গণমাধ্যম ফোরাম সদস্যসচিব শাহ মো: ইব্রাহিম মিয়া মাইজভাণ্ডারী, খলিফা আব্দুল কুদ্দুস, খলিফা আব্দুল মান্নান, চট্টগ্রাম জেলার সাবেক আহ্বায়ক আব্দুল ওয়াদুদ রিপন, চট্টগ্রাম মহানগর মইনীয়া যুব ফোরামের উপদেষ্টা তৌহিদুল কাদের চৌধুরী, সভাপতি নোমান উদ্দিন রাজিব, সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন রাজিব, চকবাজার ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান রাসেল প্রমুখ। ইফতারের আগে মুসলিম উম্মাহর শান্তি সমৃদ্ধি কল্যাণ এবং দেশবাসীর ওপর আল্লাহর রহমত কামনায় মুনাজাত পরিচালনা করেন শাহ্সূফী মাওলানা সাইয়্যিদ সাইফুদ্দীন আহমদ আল্-হাসানী (মা.জি.আ.)।

এ জাতীয় আরো খবর..

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আজকের অর্থনীতি ২০১৯।

কারিগরি সহযোগিতায়:
x