রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০২:৩২ অপরাহ্ন

ঢাকার ভবিষ্যৎ নগর উন্নয়নের খসড়া উপস্থাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ৫ জুন, ২০২৩

নিউজটি শেয়ার করুন

ঢাকার ভবিষ্যৎ নগর উন্নয়নের ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য মাইলফলক হিসেবে সম্প্রতি ট্রানজিট ওরিয়েন্টেড ডেভেপলমেন্টের (টিওডি) দ্বিতীয় সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ সোমবার রাজধানী উন্নয়ন কর্তপক্ষ (রাজউক) ও জাইকা প্রকল্প দলের আয়োজনে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) এ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

জাইকার চলমান টেকনিক্যাল সহযোগিতা প্রকল্প ‘দ্য প্রজেক্ট ফর ডেভেলপমেন্ট অব পলিসি অ্যান্ড গাইডলাইন্স ফর ট্রানজিট ওরিয়েন্টেড ডেভেপল্পমেন্ট (টিওডি) অ্যালং মাস ট্রানজিট করিডরস’ শীর্ষক এই সেমিনারে টিওডি নির্দেশিকা ও পাইলট প্রকল্পের ভবিষ্যৎ গতিপ্রকৃতি ও অগ্রগতি উপস্থাপন করা হয়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে নিজেদের গুরুত্বপূর্ণ মতামত তুলে ধরেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিব কাজী ওয়াছি উদ্দিন, রাজউকের চেয়ারম্যান মো. আনিছুর রহমান মিয়া এবং জাইকা বাংলাদেশ অফিসের মূখ্য প্রতিনিধি ইচিগুচি তোমোহিদে ।

জাইকা বাংলাদেশ অফিসের মূখ্য প্রতিনিধি ইচিগুচি তোমোহিদেএই প্রকল্পের ওপর বিশেষভাবে গুরুত্বারোপ করে জানান, টিওডি’র আওতা সম্প্রসারিত হলে ও তা প্রচার করা গেলে নগর পরিকল্পনা ও উন্নয়নের বিকাশের মধ্য দিয়ে ঢাকা বা স্মার্ট ঢাকার মানুষদের জীবন আরও স্বাচ্ছন্দ্যদায়ক ও কার্যকর করে তোলা যাবে। টিওডি’র সফলতার মূল চাবিকাঠি হিসেবে তিনি সমন্বিত লক্ষ্য ও অংশীদারিত্বের কথা উল্লেখ করেন এবং আলোচনা ও সচেতনতা বৃদ্ধির ওপর বিশেষভাবে আলোকপাত করেন।

মূল অংশীদারদের সহযোগিতায় নিপ্পোন কোয়েইয়ের নেতৃত্বে জাইকার একটি পরামর্শক দল এই টিওডি নির্দেশিকাটি প্রস্তুত করছে। এতে ঢাকায় টিওডি’র সাধারণ রূপরেখা, মূল প্রক্রিয়া ও পরিকল্পনার বিষয়বস্তু এবং প্রয়োগের উপায়গুলো নিয়ে আলোকপাত করা হয়েছে। নির্বাচিত সাইটের পরিকল্পনা অন্তর্ভুক্তির জন্য দু’টি পাইলট প্রকল্প উন্মোচন করা হয়; যথা: উত্তরা সেন্টার স্টেশনে দেশের প্রথম এমআরটি লাইন ৬ এবং ভবিষ্যতের জন্য গাবতলী এলাকার এমআরটি লাইন ৫ ও ২। পাশাপাশি, দিল্লি মেট্রো রেল কো-অপারেশনের ক্ষেত্রে টিওডির সফলতার কথা তুলে ধরা হয়, যা ঢাকায়ও একইভাবে অর্জন করা সম্ভব বলে আশাবাদ ব্যক্ত করা হয়।

গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিব কাজী ওয়াছি উদ্দিন বলেন, “টিওডি নির্দেশিকার অগ্রগতি সকল অংশীজনদের মাঝে ছড়িয়ে দেয়ার ক্ষেত্রে সেমিনারটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। ফলস্বরূপ, প্রকল্পটি নগরায়ন ও মধ্যম-আয়ের দেশ হওয়ার দিকে বাংলাদেশের যাত্রাকে ত্বরান্বিত করবে।”

সেমিনারে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়, রাজউক, ডিটিসিএ, ডিএমটিসিএল, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন, বিআর, বিআরটিএ, ডিবিআরটিসিএল, বিএডিসি, বুয়েট, এডিবি, এএফডি এবং বিশেষজ্ঞ ও পরামর্শক সহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়, সরকারি প্রতিষ্ঠান, আন্তর্জাতিক দাতা ও অ্যাকাডেমিয়া সহ অংশীদাররা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও, অংশীদাররা টিওডি উদ্যোগ সফল করার ক্ষেত্রে পারস্পরিক বোঝাপড়া ও সহযোগিতার ওপর বিশেষভাবে গুরুত্বারোপ করেন।

এ জাতীয় আরো খবর..

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আজকের অর্থনীতি ২০১৯।

কারিগরি সহযোগিতায়:
x