শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪, ১২:৫২ পূর্বাহ্ন

সুদান থেকে ৬ মাসের মধ্যে ফেরত আসা ৯৫ জনকে সহযোগিতা

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৭ জুন, ২০২৩

নিউজটি শেয়ার করুন

সুদান থেকে ৮৯৭ জন প্রবাসী ফেরত এসেছেন। এর মধ্যে ৯৫ জন প্রবাসী চলতি বছরের জানুয়ারির পর সুদান গিয়েছেন। তাদেরকে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অন্তর্ভুক্ত ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের মাধ্যমে ৫০ হাজার টাকার সহযোগিতা করা হচ্ছে। গতকাল বুধবার রাজধানীর প্রবাসী কল্যাণ ভবনের বিজয় ৭১ হলে সুদান ফেরত ২০ জন প্রবাসীকে ৫০ হাজার টাকার চেক দেওয়ার মাধ্যমে এ কার্যক্রম শুরু করা হয়। অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ২০ জনকে সহযোগিতা করা হলেও দুই দিনের মধ্যে বাকি ৭৫ জনের ঠিকানায় এ সহযোগিতা পৌঁছে যাবে বলে জানান বক্তারা।

এ সময় বক্তারা বলেন, ‘সুদান ফেরত ৮৯৭ জনের মধ্যে ৬৬৩ জনের সকল ধরনের তথ্য আমরা পেয়েছি। এই ৬৬৩ জনের মধ্যে আপাতত ৯৫ জনকে সহযোগিতা করা হচ্ছে। তবে আমরা সুদান ফেরত সকল প্রবাসীকেই নানা ধরনের সহযোগিতা করতে প্রস্তুত রয়েছি। এছাড়া সুদান থেকে ফেরত আসা ২৩৭ জনের কোন তথ্য আমাদের কাছে আসেনি। এখন এই ২৩৭ জনের মধ্যে কেউ বলতেই পারে আমরা প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় থেকে কোন কিছু পাইনি। আমরা তাদের বলতে চাই আপনেরা আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করুন। আমরা আপনাদের সকল সহযোগিতা করতে প্রস্তুত রয়েছি।’

অনুষ্ঠানে সুদান ফেরত আসা ভুক্তভোগী সবুজ হালদার বলেন, ‘সব সময় একটা আতঙ্কের মধ্যে থাকতাম। এই বুঝি আমাদের গায়ে গুলিতে লাগলো অথবা কামানের গোলা এসে সবি লন্ড ভন্ড করে দেবে। তার থেকে বেশি আতঙ্ক ছিল বিমান হামলা। আমরা সবসময় বেজমেন্ট এ অবস্থান করতাম যাতে করে হামলা হলেও অন্তত জীবনটা যেন বেঁচে যায়।’

তিনি আরো বলেন, ‘আপনাদের কারনেই আমরা জীবন নিয়ে দেশে ফিরে আসতে পেরেছি। বাবা মার কোলে ফিরে এসেছি। আজকে আমরা যে টাকাটা পেয়েছি সেটা আমাদের জন্য অনেক বড় পাওয়া। এই দুঃসময়ে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন। প্রবাসী ও তাদের পরিবারের পক্ষ থেকে মন্ত্রীকে কৃতজ্ঞতা জানাই।’

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেন, ‘আমরা যে সহযোগিতা দিচ্ছি এটা খুবই সামান্য। তবে এটা যে আমরা দিতে পারছি এ জন্য আমরা নিজেদেরকে সৌভাগ্যবান মনে করছি। এ সেবার মাধ্যমে আমাদের প্রবাসীকর্মীদের মান উন্নয়নে সহযোগিতা করছি। সামনে আরো অনেক সেবায় আমরা তাদেরকে অন্তর্ভুক্ত করবো। এ যাত্রায় সুদান ফেরত ৮৯৭ জন প্রবাসী কর্মীর মধ্যে যারা চলতি বছরের পহেলা জানুয়ারির পর সুদান গিয়েছেন এমন ৯৫ জনকে আমরা এই বীমার সহায়তায় নিয়ে এসেছি। আমরা ছোট পরিসরে শুরু করলেও এর ব্যাপ্তি অনেক বড়। আমাদের এ প্রচেষ্টা শুধু এখানেই থেমে থাকবেনা এটি আরো দূর-দূরান্তে আমরা ছড়িয়ে দিবো।’

তিনি আরো বলেন, ‘দেশের বাহিরে থাকা সকল প্রবাসীদের বীমার আওতায় আনার আলোচনা চলছে। কিন্তু মেকানিজমের ক্ষেত্রে একটু চিন্তা ভাবনা রয়েছে। আমরা আলোচনার মাধ্যমে চেষ্টা করছি প্রবাসে থাকা ব্যক্তিদের বীমা যেনো এখান থেকে করা যায়। তাহলে তারা অনেক বেশি উপকৃত হবে।’

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন, জীবন বীমা করপোরেশনের এমডি মিজানুল হক চৌধুরী ও ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড এর মহাপরিচালক হামিদুর রহমান সহ মন্ত্রণালয়ের অন্যান্য কর্মকর্তারা।

এ জাতীয় আরো খবর..

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আজকের অর্থনীতি ২০১৯।

কারিগরি সহযোগিতায়:
x