বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:৫৪ অপরাহ্ন

জরুরি প্রয়োজনের মুহূর্তে যাতায়াত নিয়ে আর দুশ্চিন্তা নয়

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৭ জুলাই, ২০২৩

নিউজটি শেয়ার করুন

ছোট্ট রাফিদের ডেঙ্গু হয়েছে। সাত বছর বয়সী সন্তানকে নিয়ে তার বাবা-মা দুশ্চিন্তিত। এর মাঝে একদিন রাত ৩টার সময় রাফিদের ১০৪ ডিগ্রি জ্বর উঠে যায়। তাকে তখনই হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া প্রয়োজন। কিন্তু এই গভীর রাতে হাসপাতালে যাওয়ার জন্য যানবাহন কোথায় পাওয়া যাবে, এ কথা চিন্তা করে তার বাবার কপালে দুশ্চিন্তার ভাঁজ আরো গভীর হয়। কিন্তু রাফিদের মা মাথা ঠান্ডা রেখে উবার কল করলেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই গাড়ি চলে এলো তাদের বাড়ির দরজায়। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর চিকিৎসা পেয়ে রাফিদ দ্রুতই সুস্থ হয়ে ওঠে।

২৫ জুলাই, ২০২৩ পর্যন্ত এ বছর ৩৭ হাজার ৬৮৮ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন, যার মধ্যে ২২ হাজার ৩৪৯ জনই ঢাকার। রাফিদের মতো আমাদেরও যেকোনো মুহূর্তে যেকোনো সংকট এসে উপস্থিত হতে পারে। এমন জরুরি পরিস্থিতিতে উবারের মতো রাইডশেয়ারিং সার্ভিসগুলো বেশ সুবিধাজনক। দিন-রাতের যেকোনো সময়, যেকোনো জায়গা থেকে এসব সার্ভিস বুক করা যায়। অ্যাপে শুধু আপনার গন্তব্য আর পিক-আপ পয়েন্ট টাইপ করুন। কিছুক্ষণের মধ্যেই গাড়ি চলে আসবে আপনার দোরগোড়ায়।

এ জাতীয় আরো খবর..

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আজকের অর্থনীতি ২০১৯।

কারিগরি সহযোগিতায়:
x