শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪, ০৪:৩৭ পূর্বাহ্ন

ভারতীয় পণ্য বর্জনে ১২ দলীয় জোটের সংহতি

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২৩ মার্চ, ২০২৪

নিউজটি শেয়ার করুন

ভারতীয় আগ্রাসন ও ভারতীয় পণ্য বর্জন আন্দোলনে সংহতি প্রকাশ করায় বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এডভোকেট রুহুল কবীর রিজভী আহমেদ এর সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন ১২ দলীয় জোটের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ । এসময় নেতারা জনাব রিজভী আহমেদ ও বিএনপির অন্যান্য নেতাদের ভারতীয় পণ্য বর্জনের টি শার্ট হাতে তুলে দেন।

ভারতের সহায়তায় গত ৭ জানুয়ারি বাংলাদেশে নির্বাচনের নামে এক অদ্ভুত নাটক মঞ্চায়িত করেছে ডামি সরকার। ভারত একটি গণবিরোধী দখলদার শক্তিকে বার বার মদদ যোগাচ্ছে। ফলে অধিকার বঞ্চিত হচ্ছে বাংলাদেশের জনগণ এবং দেশের সার্বভৌমত্ব ক্রমান্বয়ে দুর্বল হয়ে পড়ছে।অপর দিকে সীমান্তে বাংলাদেশীদের বিএসএফ পাখির মতো গুলি করে হত্যা করছে প্রতিনিয়ত। এর প্রতিবাদ হিসেবে সামজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভারতীয় পণ্য বর্জনের আহবান জানিয়েছে বিভিন্ন সংগঠন ও অনলাইন এক্টিভিস্টরা। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল -বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী ২১ মার্চ ভারতীয় পণ্য বর্জনে সংহতি জানিয়েছেন।

এবার বিএনপির সাথে সংহতি জানিয়ে ভারতীয় পণ্য বর্জনের আহবান জানিয়েছে ১২ দলীয় জোট। সাক্ষাৎ কালে উপস্থিত ছিলেন শাহাদাত হোসেন সেলিম, মুখপাত্র ১২দলীয় জোট,সৈয়দ এহসানুল হুদা, সমন্বয়ক ১২ দলীয় জোট, আহসান হাবিব লিঙ্কন, মহাসচিব জাতীয় পার্টি, মুফতি মহিউদ্দিন ইকরাম-মহাসচিব, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ, রাশেদ প্রধান-সিনিয়র সবসভাপতি, জাগপা, ফারুক রহমান- চেয়ারম্যান, লেবার পার্টি ও সামসুদ্দিন পারভেজ, বাংলাদেশ কল্যান পার্টি।

উল্লেখ্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমসহ সর্বত্রই এখন “ইন্ডিয়া আউট ক্যাম্পেইনে” উত্তাল। ভারতীয় পণ্য বর্জন করে জনগণ প্রতিবাদ জানাচ্ছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভারতীয় পণ্য বর্জনের যে ঢেউ দৃশ্যমান তাতে মনে হয় দেশের বিশাল জনগোষ্ঠী ভারতীয় পণ্য বর্জনের পক্ষে দৃঢ় অবস্থান গ্রহণ করেছে। ১২ দলীয় জোট নেতৃবৃন্দ আশা প্রকাশ করেন রুহুল কবির রিজভির ন্যায় বিএনপিও তাদের দলীয় কর্মসূচিতে ভারতীয় পণ্য বর্জনের আহ্বান করবে।

এ জাতীয় আরো খবর..

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আজকের অর্থনীতি ২০১৯।

কারিগরি সহযোগিতায়:
x