বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৫২ অপরাহ্ন

আশরাফুল আলম মাধবপুর পৌর নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী

অর্থনীতি ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০

নিউজটি শেয়ার করুন

হবিগঞ্জের মাধবপুরসহ জেলার ৫ টি পৌরসভায় ডিসেম্বরে পৌর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে মেয়র পদে প্রার্থীর দৌঁড়ে রয়েছেন অনেকেই। দীর্ঘদিন ধরে তারা এলাকায় নানাভাবে গণসংযোগ, কুশল বিনিময়ও করছেন। বর্তমানে বেশির ভাগ প্রার্থী মেয়র পদে দলীয় টিকেট পেতে তৃণমূল থেকে দলের হাইকমান্ডের কাছে ধরনা দিচ্ছেন। বলতে গেলে এসব প্রার্থীরা মনোনয়নের জন্য এখন নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছেন। অনেকে আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতাদের অনুকম্পা পেতে কয়েকদিন ধরে রাজধানী ঢাকা অবস্থান করছেন।

মনোনয়ন দৌড়ে এগিয়ে থাকার কথা জানিয়েছেন। ১৯৯০ থেকে ১৯৯৬ পর্যন্ত জামাত বিএনপির বিরুদ্ধে আন্দোলন ভূমিকা রেখেছেন। অর্থ মন্ত্রী এস এম কিবরিয়া হত্যাকাণ্ডের বিরুদ্ধে আন্দোলন করেছেন। মাধবপুর পৌর আওয়ামীলীগ নির্বাচিত সাধারন সম্পাদক। মাধবপুর উপজেলা সাবেক ছাএলীগ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, মাধবপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় অভিভাবক সদস্য, মাধবপুর বাজারের ৬নং ওয়ার্ড বাসিন্দা। ঐতিহ্যবাহী পরিবারের পিতা মরহুম ওমর আলী, তৃতীয় সন্তান আশরাফুল আলম(টিটু)।তিনি মাধবপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ন আহবায়ক- দায়িত্ব পালন করেন। তিনি এলাকার বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে সম্পৃক্ত হয়ে এলাকার অসহায় মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। আওয়ামী লীগের তৃনমুলের নেতাকর্মী ও

সাধারণ ভোটারদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, মাধবপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে প্রার্থী সংখ্যা বাড়লেও সব প্রার্থী কিন্তু সমানভাবে জনপ্রিয়তা অর্জন করতে পারেনি ভোটের মাঠে। সাংগঠনিক দক্ষতা ও ব্যক্তিগত ইমেজের কারণে হাতে গোনা মাত্র কয়েকজন প্রার্থী ভোটের মাঠে জনপ্রিয়তায় রয়েছেন। এসব প্রার্থীদের মধ্যে বেশ সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছেন আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পেলে বেশির ভাগ ভোট পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে তার। মূলত আঞ্চলিকতার ইস্যুতে সে জনপ্রিয় ও শক্তিশালী প্রার্থী। এছাড়া তৃণমূলে সাধারণ ভোটার ও দলীয় নেতাকর্মীদের মাঝেও সমান জনপ্রিয়তা তার। বাকিরাও যে যার মতো ভাল অবস্থানে রয়েছেন বলে দাবি করেছেন তাদের

সমর্থকরা। আশরাফুল আলম(টিটু) জানান,বিগত ৩টি নির্বাচনী মৌসুম থেকে আমি নির্বাচন করার জন্য পৌরবাসীর সমর্থন ও দলীয় হাই কমান্ডের নির্দেশে এলাকায় কাজ করছি। বিগত সময়গুলোতে যারা দলীয় মনোনয়ন নিয়ে মাঠে এসেছেন জননেত্রীর শেখ হাসিনার প্রার্থী মনে করে তাদের সাথে কাজ করেছি।আমার বিশ্বাস নেত্রী এবার আমাকে মূল্যায়ন করবেন।

এ জাতীয় আরো খবর..

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আজকের অর্থনীতি ২০১৯।

কারিগরি সহযোগিতায়:
x