বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:৩৪ অপরাহ্ন

সিএসআর এর আওতায় স্বাস্থ্যখাতে এস. আলম গ্রুপের অবদান

অর্থনীতি ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২৩

নিউজটি শেয়ার করুন

একটি ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান শুধু মুনাফা তৈরির জন্য গড়ে উঠে না, সমাজের জন্য থাকে তার কিছু দায়িত্বও। করপোরেট সামাজিক দায়বদ্ধতা কর্মসূচি (সিএসআর) এর আওতায় কোম্পানিগুলো বিভিন্ন খাতে সহযোগিতার মাধ্যমে অবদান রেখে চলেছে। দেশের অন্যতম শীর্ষ শিল্পগোষ্ঠী এস. আলম গ্রুপ যাত্রার শুরু থেকে সিএসআর কার্যক্রমকে গুরুত্ব দিচ্ছে। সে প্রচেষ্টারই অংশ হিসেবে দেশের স্বাস্থ্যখাতে কোম্পানিটি উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করে, যা কোভিড-১৯ মহামারিকালে আরো জোরদার করা হয়। সে সময় প্রায় কোটি টাকারও বেশি ব্যয়ে সহায়তামূলক কার্যক্রম গ্রহণ করে এস. আলম গ্রুপ।

কোভিড-১৯ মহামারিতে উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে বাংলাদেশকে করোনার চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে হয়েছে। এ সময় সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে প্রয়োজন ছিল আইসিইউ ভেন্টিলেটরসহ অত্যাধুনিক মেডিক্যাল সরঞ্জাম। এ সময় এগিয়ে এসেছে এস আলম গ্রুপ। কোম্পানিটি  দেশের মোট ৬টি হাসপাতালে মুমূর্ষুদের জীবন বাঁচাতে ১৬টি ভেন্টিলেটরযুক্ত আইসিইউ এর ব্যবস্থা করে দেয়। এছাড়াও প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে দেওয়া হয় ৮টি হাই ফ্লো ন্যাসাল ক্যানোলা (অক্সিজেন) ও পর্যাপ্ত সুরক্ষা সামগ্রী। এছাড়া, বগুড়া ও সিলেটেও উচ্চমাত্রার অক্সিজেন সরবরাহ যন্ত্র হাইফ্লো ন্যাসাল ক্যানোলা ও আনুষঙ্গিক সরঞ্জামসহ অক্সিজেন সিলিন্ডার প্রদান করে এস. আলম গ্রুপ।

শুধু রোগী নয়, চিকিৎসকদের সুরক্ষাতেও বিচক্ষণ ভূমিকা রেখেছে কোম্পানিটি। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসকদের চিকিৎসাসেবা প্রদানের ঝুঁকি কমিয়ে আনতে এই শিল্প গ্রুপটি দিয়েছে ৫০০টি পিপিই, চিকিৎসকদের ডিউটি রুমে দুইটি এসি, আরো স্থাপন করা হয়েছে ২টি নমুনা কালেকশন বুথ। পাশাপাশি চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের কোয়ারেন্টিনে থাকা চিকিৎসকদের আপ্যায়ন বাবদ নগদ সহায়তা, ১টি এসি, ২টি নমুনা কালেকশন বুথ, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল এন্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস (বিআইটিআইডি) চিকিৎসকদের ডিউটি রুমের জন্য ১টি এসি, ২টি নমুনা কালেকশন বুথ ও চট্টগ্রামের ১৪ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সর্বমোট ৯৮ হাজারেরও বেশি পিপিই সরবরাহ করা হয়েছে।

দেশের স্বাস্থ্যখাতের উন্নয়ন ও সাধারণ মানুষের জন্য সহজলভ্য স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের লক্ষ্যে চট্টগ্রামে কোম্পানিটির তত্ত্বাবধানে একটি হাসপাতাল নির্মিত হচ্ছে, যেটির নির্মাণকাজ প্রায় শেষের দিকে। হাসপাতালটির প্রধান উদ্দেশ্য হবে সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা দেয়া। এবং চিকিৎসাসেবাকে আরো সহজলভ্য করে সবার দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়া। এছাড়াও, সারাদেশে আর্থিক প্রতিষ্ঠানের অধীনে থাকা হাসপাতাল পরিচালনার ক্ষেত্রে এস. আলম এর গ্রুপ ম্যানেজমেন্ট এর সুদূরপ্রসারী অভিজ্ঞতা রয়েছে।

এস. আলম গ্রুপ পূর্বেও শিক্ষা, স্বাস্থ্য, দুর্যোগ মোকাবিলা, পরিবেশ সংরক্ষণ ও মানবাধিকার রক্ষায় ধারাবাহিকভাবে বিভিন্ন ইতিবাচক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে এবং বর্তমানেও তাদের এ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। জাতীয় দুর্যোগের সময় প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও কল্যাণ তহবিলে নিয়মিতভাবে সহযোগিতা ও অনুদান দিয়ে আসছে এস আলম গ্রুপ। সম্প্রতি চট্টগ্রামে ১৫ হাজার পরিবারের জন্য জরুরি ত্রাণ সহায়তা পৌঁছে দেবার মাধ্যমে তারা বন্যাদুর্গতদের পাশে দাঁড়িয়েছে এবং দেশের বিভিন্ন দুর্যোগকালীন পরিস্থিতিতে সর্বাগ্রে অবস্থান নেবার মাধ্যমে নিজেদের সামাজিক দায়িত্বশীলতা পালন করে চলেছে দেশের শীর্ষস্থানীয় এই বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান।

এ জাতীয় আরো খবর..

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আজকের অর্থনীতি ২০১৯।

কারিগরি সহযোগিতায়:
x